নারীদের অধিকার নারীদেরই আদায় করে নিতে হবে -শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী

0
657

তথ্য বিবরণী: শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, নারীদের অধিকার নারীদেরই আদায় করে নিতে হবে। নারীর ক্ষমতায়নে সরকার ভিত রচনা করেছেন। কর্মক্ষেত্রে নারীদের সুষ্ঠ পরিবেশ নিশ্চিত করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। পুরুষের পাশাপশি নারীরা আজ সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি আজ (শুক্রবার) সকাল ১১টায় খুলনা শহীদ হাদিস পার্কে আন্তর্জাতিক নারী দিবস-২০১৯ উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ পুলিশ উইমেন্স নেটওয়ার্ক খুলনা রেঞ্জ ও কেএমপির যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। নারী দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘সবাই মিলে ভাবো, নতুন কিছু করো নারী-পুরুষ সমতার নতুন বিশ্ব গড়ো’।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, কৃষিক্ষেত্র ও গৃহস্থালী থেকে শুরু করে সমাজের সকল ক্ষেত্রে নারীদের অবদান রয়েছে। তাদের এই অবদানকে মূল্যায়ণ করতে হবে, নারীদের সম্মান করতে হবে। তাদের আরো উন্নয়নে সম্মিলিতভাবে এগিয়ে আসতে হবে। নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। নারীরা আজ কোনক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই। সরকার জাতীয় নারী উন্নয়ন নীতি-২০১১ প্রণয়ন করে তা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে নারীদের নিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং রাজনৈতিক দলেও নারী প্রতিনিধিত্ব বেড়েছে। তিনি বলেন, সরকার দেশের বিভিন্ন স্থানে ইত্যেমধ্যে একশটি অর্থনৈতিক অঞ্চল নির্মাণ শুরু করেছে। পদ্মাসেতু নির্মাণ সম্পন্ন হলে এঅঞ্চলের অর্থনীতির একটি বিরাট পরিবর্তন আসবে।

কেএমপির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রকিবুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনার অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ হাবিবুর রহমান, সিটিএসবির বিশেষ পুলিশ সুপার মোছাঃ রাশিদা বেগম, পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ, ডেপুটি পুলিশ কমিশনার মোঃ জাফর হোসেন, মহিলা কাউন্সিলর মোছাঃ লুৎফুন নেছা, মহিলা শ্রমিকলীগের সভাপতি নাসরিন আক্তার, মহিলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এবং জাতীয় মহিলা সংস্থার সাধারণ সম্পাদক প্রমুখ। স্বাগত জানান খুলনা আর আর এফ এর কমান্ড্যাট মোছাঃ তাসলিমা খাতুন।

এর আগে প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে পাওয়ার হাউজ মোড় থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে হাদিস পার্কে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তা, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার জনগণ অংশগ্রহণ করেন।