নগর বিএনপির নিন্দা

0
899

খবর বিজ্ঞপ্তি : কারাগারে আটক নেতা-কর্মীদের গায়েবী মিথ্যা মামলায় শ্যোন এ্যারেস্ট দেখানোর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে খুলনা মহানগর বিএনপি। গতকাল বৃহস্পতিবার এক প্রতিবাদ লিপিতে নেতৃবৃন্দ ৭ দফার অন্যতম দাবী গায়েবী মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার না করার জন্য নির্বাচন কমিশন কর্তৃক পুলিশকে নির্দেশনা দেবার পরও খুলনার পুলিশ প্রশাসন তা না মেনে বিএনপির নেতাকর্মীদের কারামুক্ত হওয়ার পথকে বাধাগ্রস্থ করা ও ভীতি সঞ্চার সৃষ্টির জন্য এই পথ বেঁছে নিয়েছে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের সকল অন্তরায় দুর করে একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবীকে উপেক্ষা করে এখনও গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রাখা সরকারের একদলীয় নির্বাচন করার হীন মানষিকতা। বিবৃতিতে অবিলম্বে সকল ধরণের গ্রেফতার ও হয়রানি বন্ধের দাবি জানানো হয়। নেতৃবৃন্দ হুশিয়ার করে বলেন, সরকারের এই দ্বিমুখী নীতির পরিনাম শুভ হবে না। নেতৃবৃন্দ কারাগারে আটক সোনাডাঙ্গা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মুরাদসহ ৩২ জন নেতা-কর্মীসহ সকল নেতাকর্মীর নি:শর্ত মুক্তির দাবি জানিয়ে অবিলম্বে শ্যোন এরেস্ট বন্ধের দাবি জানান।
বিবৃতিদাতারা হলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাই, সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, সৈয়দা নার্গিস আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, মীর কায়সেদ আলী, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, সিরাজুল ইসলাম, জলিল খান কালাম, ফখরুল আলম, এড. ফজলে হালিম লিটন, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, শেখ আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, ইকবাল হোসেন খোকন প্রমুখ।