নগরীতে স্থাপতিদের নিকট গণহারে চাঁদা দাবি

0
553

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মহানগরী খুলনায় বিভিন্ন স্থানে বসবাসরত স্থাপতিদের কাছে গনহারে চাঁদা দাবীর ঘটনা ঘটেছে।নগরীর মুজগুন্নী আবাসিক এলাকার ১৬ নং রোডের বাসিন্দা স্থাপতি একেএম ফয়জুল আলম রনি এই প্রতিবেদককে জানান ১৯ সেপ্টেম্বর (বুধবার) বেলা ১২টা ১ মিনিটে তার ব্যাক্তিগত মোবাইল নম্বরে একটি অপরিচিত মোবাইল নম্বর ০১৮২৫৩৯১৪০০ হতে জনযুদ্ধের নেতা বিপুল পরিচয় দিয়ে পাচ লক্ষ টাকা চাদা দাবী করে।চাঁদা না দিলে পরিবারের সদস্য ও সন্তানদের অপহরণ ও হত্যার হুমকি দেয়া হয়। ঘটনার কিছুক্ষন পরে একেএম ফয়জুল আলম তার পরিচিত আরেকজন আর্কিটেক্ট হাসান শাহরিয়ার খান নিলয়ের কাছে জানতে পারেন, তার কাছেও একই নম্বর থেকে ফোন করে চাঁদা দাবী করা হয়েছে। এই ঘটনার কিছুক্ষনের মধ্যে জানা যায় বয়রায় আর্কিটেক্ট ফার্ম বসতভিটার কর্নধার স্থাপতি আল-মাসুম বিল্লার ফোনে একই নাম্বার দিয়ে ফোন দেওয়া হয়।তিনি জরুরী মিটিং এ থাকায় তার ব্যাক্তিগত নাম্বার রিসিভ করতে পারেননি।

একইভাবে নন্দন বিল্ডার্স এর স্থাপতি জাহিদুর রহমান জিসানের কাছ থেকেও চাঁদা দাবি করে চক্রটি।এবং একই সময় জোয়দ্দার হাফিজ নামে আরও একজন স্থপতির কাছে থেকে একই নম্বর থেকে শীর্ষ সন্ত্রাসী বাবুর লোক পরিচয়ে চাঁদা দাবী করা হয়, এক্ষেত্রেও চাঁদা না দিলে হত্যা ও অপহরণের হুমকি দেয়া হয়। স্থপতি একেএম ফয়জুল ইসলাম নগররী কেডিএ নিউমার্কেট এলাকায় লিভিং সিস্টেম কনসাল্টেন্ট” নামে একটি আর্কিটেক্ট ফার্মের পরিচালক।চাঁদা দাবীর ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তিনি খালিশপুর থানায় একটি অভিযোগ করেছেন বলে জানিয়েছেন, যার অভিযোগ নং ৯৪৮ তাং ১৯/০৯/১৮ ।

হঠাৎ করে ধারবাহিকভাবে খুলনার বেশ কয়েকজন স্থাপতির কাছে চাঁদা দাবী জনমনে আতংকের সৃষ্টির কারণ হয়ে করেছে।এ ঘটনায় ভুক্তোভোগী ব্যাক্তি ও তাদের পরিবারবর্গ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এবং তারা প্রশাসনের নিকট দোষী ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানান।