নগরীতে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষন মামলার আসামির রিমান্ড নামঞ্জুর

0
105

নিজস্ব প্রতিবেদক: নগরীর সোনাডাঙ্গা মডেল থানা এলাকায় মাদ্রাসা ছাত্রী (১৯) কে ধর্ষনের মামলার আসামি আরিফ বিল্লাহ ওরফে রাজন (২৯)’র রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করেছে আদালত। পুলিশের ৫দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনাণী শেষে রবিবার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শাহীদুল ইসলাম এ আদেশ দিয়েছেন। এদিকে মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার খুলনা জেলা ও মহানগরের ৫সদস্যের একটি দল ভিকটিম পরিবারের সাথে দেখা করেন। এসময় তারা এ মামলায় বাদি পক্ষকে আইনী সহায়তা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।
মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার ওই টিমে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা জেলার সাধারণ সম্পাদক এড. মোমিনুল ইসলাম, নগরের সাধারণ সম্পাদক এড. খন্দকার মজিবর রহমান, অচিন্ত কুমার দাস, আজিজুর রহমান ও সোহাগ দেওয়ান।
অভিযুক্ত আরিফ বিল্লাহ ওরফে রাজন সোনাডাঙ্গা মডেল থানাধিন আইডিয়াল কলেজের সামনের মল্লিক সড়কের বাসিন্দা এ কে এম আলী হোসেনের ছেলে। দৌলতপুর বাজারের তার একটি গার্মেন্টস’র দোকান রয়েছে। এছাড়া ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী খুলনা মহানগরীর একটি মহিলা কামিল মাদ্রাসার আলীম ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী। তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার থেকে ডাক্তারী পরিক্ষা শেষে রিলিজ দেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, পুর্ব পরিচয়ের জের ধরে গত ৭জানুয়ারি বিকেলে ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে সোনাডাঙ্গা মডেল থানাধিন আইডিয়াল কলেজের সামনের মল্লিক সড়কের বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষন করে রাজন। এরপর তাকে শারীরিক নির্যাতনের পর এঘটনা কাউকে না বলতে তাকে নিশেধ করা হয়। বিষয়টি ওই ছাত্রী বাসায় ফিরে তার মাকে জানায়। এরপর তারা থানা পুলিশের কাছে গিয়ে ধর্ষনের ঘটনা জানায়। পুলিশ অভিযোগ গ্রহন করে দৌলতপুর থানা এলাকা থেকে রাজনকে গ্রেফতার করে। এঘটনায় ওই মাদ্রাসা ছাত্রী বাদি হয়ে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।