নগরীতে বিএনপির ৮ নেতাকর্মী গ্রেফতার, নিন্দা

0
488

নির্বাচনকে সামনে রেখে পুলিশের দায়ের করা গায়েবী মামলায় বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে ও শুক্রবারে নগরীর সদর ও সোনাডাঙ্গা থানা এলাকায় বিএনপি ও যুবদলের ৮ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন ১৯ নং ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক হাফিজুর রহমান হাফিজ, ২৮ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা আব্দুল করিম, যুবদল নেতা মোঃ জামাল হোসেন, মোঃ মিরাজ, শাহাদাত হোসেন ডাবলু, মোহাম্মদ বাবু, মোহাম্মদ মিলন ও ইসমাইল হোসেন। এছাড়া গত দুই রাতে পুলিশ নগরীর সকল থানায় বিএনপি ও অঙ্গ দলের নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে গণতল্লাশি অভিযান চালিয়েছে। অভিযানের সময় নেতাকর্মীদের না পেয়ে তাদের পরিবরের সদস্যদের সাথে চরম অশোভন আচরন করে এবং ধরতে পারলে বিএনপি করার মজা বুঝিয়ে দেবে বলে হুমকি দেয়।

খুলনা মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ আজ এক বিবৃতিতে এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেন, বারবার প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়ে, এমনকি শেষ পর্যন্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর স্মারকিলিপি দিয়ে নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির দাবি করা হলেও আওয়ামীলীগ সরকারকে পুনরায় ক্ষমতায় আনার জন্য পুলিশ প্রশাসন বিএনপির কোন দাবিই কানে তুলছে না। বিবৃতিতে অবিলম্বে গণগ্রেফতার বন্ধ, সকল গায়েবী মামলা প্রত্যাহার এবং গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।

বিবৃতিদাতারা হলেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাই, সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, সৈয়দা নার্গিস আলী, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, জলিল খান কালাম, সিরাজুল ইসলাম, ফখরুল আলম, এ্যাড. ফজলে হালিম লিটন, শেখ আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, ইকবাল হোসেন খোকন, আসাদুজ্জামান মুরাদ প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি