ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে জয়ন্ত মন্ডল আটক

0
717

আশাশুনি প্রতিনিধি: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত হেনে উস্কানিমুলক মন্তব্য করায় জয়ন্ত মন্ডল (৩০) নামে এক যুবককে আটক করেছে আশাশুনি থানা পুলিশ। বুধবার রাত ৩টার দিকে আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুস সালামের নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইমারত হোসেন, এসআই বিল্লাল হোসেন শেখ, এএসআই মোকাদ্দেস হোসেন ফোর্সের সহায়তায় আশাশুনি থানাধীন বুধহাটা গ্রামের ভবানী চরণ মন্ডলের ছেলে জয়ন্ত মন্ডল ওরফে জয় মন্ডল ফেসবুকে অন্যের একটি স্টেটাসে মুসলিম ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনে মন্তব্য করায় তাকে বুধহাটা এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়। এই সংক্রান্তে অত্র থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮ এর ধারা মোতাবেক ৩০(০৭)/১৯ মামলা রজু করা হয়েছে। বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে, জয়ন্ত মন্ডল ওরফে জয় মন্ডল সম্প্রতি প্রিয়া সাহার পক্ষ নিয়ে প্রথমে আলেম সমাজকে নিয়ে চরম ধৃষ্টতাপূর্ণ মন্তব্য করে। এনিয়ে ফেসবুকে প্রতিবাদ শুরু হলেও সে কর্ণপাত করেনি। বরং “অমুসলিম নারীদের ধর্ষণ করা কোরানে যাহেজ”। “আল কোরান” ধর্মীয় গ্রন্থে এই নিকৃষ্ট কথা কেন লেখা থাকবে। সুতারাং এ থেকে বোঝা যায় কোরানের অনেক কিছুই বর্তমান প্রেক্ষাপটে সঠিক নয়। কিছু ত্রুটিপূর্ণ আছে, লিখে পুনরায় ফেসবুকে মন্তব্য করে। এনিয়ে ফেসবুকে তুমুল প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। এবিষয়ে আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ মো: আবদুস সালাম জানান, জয়ন্ত মন্ডলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে সে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের কথা স্বীকার করেছে। পুলিশ বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। এদিকে, ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে চরম কটুক্তি করে ফেসবুকে মন্তব্য করায় এলাকার বিভিন্ন ধর্মের মানুষের মধ্যে তুমুল প্রতিবাদ ও ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত হানায় বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। নির্ভূল ধর্মগ্রন্থ পবিত্র আল-কুরআন সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করায় মুসলিম ধর্মালম্বীরা জয়ন্ত মন্ডল ওরফে জয় মন্ডলকে উপযুক্ত শান্তির দাবী জানিয়েছেন।