দেবহাটায় স্ত্রী-পুত্রের মারপিটে জখম গৃহকর্তা!

0
221

দেবহাটা প্রতিনিধি:
দেবহাটায় রফিকুল ইসলাম খোকা (৫৩) নামের এক গৃহকর্তাকে মারপিটের পর বাড়ীর বৈদ্যুতিক মিটারের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়ে এবং ঘরের মুল্যবান অধিকাংশ আসবাবপত্র, স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা নিয়ে চম্পট দিয়েছে স্ত্রী ও পুত্র। মারপিটের শিকার গৃহকর্তা দেবহাটা উপজেলার কোঁড়া গ্রামের মোহর আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম খোকা জানান, সংসারের উন্নতির জন্য তিনি এলাকায় বিভিন্ন ব্যবসা ও মাছ চাষ করেন। তার অসম্মতিতে স্ত্রী ফজিলা বেগম (৪৫) কালীগঞ্জ উপজেলাতে কাপড়ের ব্যবসা এবং সেখানকার রোকেয়া মুনসুর ডিগ্রি কলেজে আয়া’র চাকুরী করেন। ব্যবসা ও চাকুরীর সুবাদে দীর্ঘদিন ধরে স্ত্রী ফজিলা বেগম ঠিকমতো স্বামী ও সংসারের দেখভাল করেননা। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তাদের সংসারে গোলযোগ চলে আসছিলো। মঙ্গলবার রাতে স্ত্রী ফজিলা খাতুনকে সংসারের প্রতি মনযোগী হতে বলায় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির সৃষ্ঠি হয়। একপর্যায়ে স্ত্রী ফজিলা খাতুন ও তার বড় ছেলে ফয়সাল আলম (৩০) মিলে রফিকুল ইসলাম খোকাকে বেদম মরিপিট করে। পরদিন সকালে প্রতিদিনের ন্যায় তিনি কাজের তাগিদে বাইরে চলে যান। কাজ শেষে বিকালে বাড়ী ফিরে সবকটি ঘর খালি পড়ে থাকতে দেখেন গৃহকর্তা রফিকুল ইসলাম। প্রতিবেশীদের কাছে খোজ নিয়ে জানতে পারেন তিনি বাইরে থাকাকালীন সময়ে তার স্ত্রী ফজিলা ও বড় ছেলে ফয়সাল নগদ অর্থ ও স্বর্ণালঙ্কারসহ ঘরের সব মালামাল ভ্যান বোঝাই করে নিয়ে চলে গেছে। এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলেছে বলে গৃহকর্তা রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন।