দেবহাটায় যাত্রার আড়ালে চলছে রমরমা মাদক ও জুয়ার আসর

0
710

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা টাইমসঃ
সাতক্ষীরা জেলার দেবহাটা উপজেলার টিকেট পূর্বপাড়া গ্রামে পূর্বপাড়া মহাশ্মানে কালীপূজা উপলক্ষে চলছে রমরমা মাদক ও জুয়ার আসর। গান দেখতে এসে জুয়ার নেশায় পড়ে সর্বশান্ত হচ্ছে সাধারণ মানুষ। আর এ সুযোগে প্রতিরাতে জুয়ার আসর থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি প্রতারক চক্র।
সরেজমিনে দেখা গেছে, কুলিয়া ইউনিয়নের টিকেট এলাকায় গত বুধবার থেকে গানের আসর বসে। কয়েকজন শিল্পী এখানে গান পরিবেশন করছেন। আর এ গানের আড়ালে পাশের মাঠে সেখানে বাসানো হয়েছে একাধিক জুয়ার কোর্ট। যেখানে সারারাত চলছে জমজমাট জুয়ার আসর। গান শুনতে আসা গ্রামের সহজ সরল সাধারণ মানুষেরা লোভে পড়ে জুয়ার কোর্টে গিয়ে সর্বশান্ত হয়ে বাড়ি ফিরছেন।
স্থানীয়রা জানান, এলাকায় ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে বাছায়কৃত জুয়াড়ি নিয়ে বুধবার রাত থেকে সপ্তাহব্যাপী এ গানের আয়োজন করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে গানের আড়ালে রাত ১০টা থেকে শেষ রাত পর্যন্ত এখানে চলে জুয়ার আসর। দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে পারুলিয়ার গ্রামের আনারুল ইসলাম ওরেফে বুড়ো, সখিপুরের কাদের মেম্বার, পারুলিয়ার ইন্টু বিভিন্ন এলাকায় এ ধরনের জুয়ার আসরসহ নানা ধরনের অসামাজিক কাজ করে আসছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা গ্রামের রফিকুল ইসলাম জানান, গত রাতে তিনি গান শুনতে এসে লোভে পড়ে জুয়ার আসরে গিয়ে ৫ হাজার টাকা হেরেছেন। তারা একসঙ্গে ৮ জন এসেছেন, সকলেই জুয়া খেলে কম-বেশি টাকা খুইয়েছেন। তিনি জানান, রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মাইক্রো, নসিমন, অটোরিকশাসহ বিভিন্ন যানবাহনে চড়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ আসেন এ জুয়ার আসরে। হাজার-হাজার টাকার কারবার হয় জুয়ার কোটে।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, প্রকাশ্যে জুয়ার আসরের কারণে এলাকার উঠতি বয়সের ছেলেরা নষ্ট হচ্ছে। জুয়ার আয়োজক ও তার সঙ্গীরা প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ ভয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস করছে না। তাছাড়া প্রশাসনের সঙ্গেও তাদের সম্পর্ক রয়েছে। এমনকি এই জুয়ার আসরের পাশাপাশি জমজমাট ভাবে চলছে মাদক ব্যবসা।
দেবহাটা থানার ওসি কাজী কামাল হোসেন মুঠোফোনে জানান, এমন কোন তথ্য তার জানা নেই। তবে ঘটনার সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।