দেবহাটায় মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে নজরুল ইসলাম: সবাই সচেতন হলে অল্প দিনেই ডেঙ্গু প্রতিরোধ করা সম্ভব

0
352

আব্দুর রব লিটু, দেবহাটা: সবাই সচেতন হলে এবং ডেঙ্গুর উৎপত্তিস্থল ধ্বংস করে অল্প দিনেই ডেঙ্গু প্রতিরোধ করা সম্ভব। ডেঙ্গুর প্রকোপ অচিরেই বন্ধ করতে প্রত্যেকের বাড়ির আশপাশে জমে থাকা পানি, বিশেষ করে টব, পলিথিন, ডাবের খোসা ইত্যাদিতে যাতে পানি জমে না থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। বর্তমান প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এদেশের মানুষের সুখ দুঃখের কথা সব সময় চিন্তা করেন। এবিষয়টি নিয়ে সারা দেশে সরকারে পক্ষে মসক নিধনে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে চলেছে।

সোমবার বেলা ১১টায় “নিজ আঙ্গিনা পরিষ্কার রাখি, সবাই মিলে সুস্থ্য থাকি’ এবং দেবহাটা উপজেলাকে ডেঙ্গু মুক্ত করি” স্লোগান সামনে রেখে উপজেলার পারুলিয়াস্থ শহীদ আবু রায়হান চত্বরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন, জেলা আওয়ামীলী প্রতিটি গের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নজরুল ইসলাম। এসময় তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে দেশের যে সকল উন্নয়ন হয়েছে, তা অন্য কোন সময় লক্ষ করা যায় নি। আমরা সকলে যদি একটু খেয়াল করি তাহলে খুব তাড়াতাড়ি ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে মুক্তি পেতে পারি। তাই ডেঙ্গু প্রতিরোধে সকলকে সম্মলিত প্রচেষ্টায় এগিয়ে আসতে হবে।

জেলা পরিষদের সদস্য আল ফেরদৌস আলফা’র আয়োজনে মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীনের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্নুরের উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ¦ আব্দুল গণি, দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতন, অনুষ্ঠানের আয়োজক সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব আল ফেরদাউস, সদস্য অ্যাড. শাহনাজ পারভীন মিলি, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুল লতিফ, পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, দেবহাটা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু বকর গাজী, কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসাদুল ইসলাম। এসময় দেবহাটা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই নয়ন চৌধুরী, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটু, পারুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য ফরহাদ হোসেন হিরা, সাধারন সম্পাদক রাসেল আহমেদ, ইউপি সদস্য আব্দুল আলিম, ইয়ামিন মোড়ল, মোনাজাত আলী, মোক্তার আলী, আব্দুল করিম, অচিন্ত কুমার, আবুল হোসেন, আরতী রানী, হামিদা পারভীন, নারছিস সুলতানা, বানু আল কাদেরী, আল্পনা অধিকারীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে জেলা পরিষদের সদস্য আলফা’র আয়োজনে গরীব অসহায় ১হাজার পরিবারের মধ্যে মশারী তুলে দেন অতিথিরা। এছাড়া স্প্রে মেশিনের সাহায্যে কীটনাশক স্প্রের মাধ্যমে ভ্রামমান ভাবে মশার বংশ ধ্বংস করতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়।