দেবহাটায় ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে মহানবী (সঃ) এর নামে কটুক্তি করায় থানায় মামলা, আটক-১

0
640

আব্দুর রব লিটু, দেবহাটা:
দেবহাটায় মহানবী (সঃ) ও ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করে ফেসবুকে পোষ্ট করার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হওয়ার পর একজনকে আটক করেছে পুলিশ। সূত্রে জানায়, উপজেলার বহেরা গ্রামের সন্তোষ দাসের পুত্র কিরোন কুমার দাস তার ব্যক্তিগত ফেসবুকে মহানবী ও ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করে একটি পোষ্ট করে। পরে বিষয়টি স্থানীয়দের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করলে সে আইডি থেকে মুছে ফেলে পোষ্টটি। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ”াঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বৃহস্পতিবার রাতে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানায় মুসলিম শরিয়াহ আইনে অভিযোগ দায়ের করেন বহেরা গ্রামের মৃত মোবারক সরদারের পুত্র ও কুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম। অভিযোগে, বহেরা গ্রামের সন্তোষ দাসের পুত্র কিরোন কুমার দাস(২৫)কে প্রধান আসামী ও তার ভাই হিরোন কুমার দাস(২২)কে ২য় আসামী করেন। পরে বিষয়টির সত্যতা পেয়ে দেবহাটা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে হিরোন কুমারকে আটক করতে সক্ষম হলেও প্রধান আসামী কিরোন কুমার পালিয়ে যায়। এতে স্থানীয় ধর্মপ্রান মুসলমানরা একটু শান্ত হলেও প্রধান আসামী কিরোন কুমার দাসকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবি জানায়। এদিকে আসামীদের পিতা-মাতা দেশের বাইরে থাকায় তার স্বজনদের সাথে কথা বললে তাকে ঘটনার পর থেকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ জানায়।
বিষয়টি নিয়ে উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার মন্ডল জানান, ধর্ম যার যার। কোন ধর্মে অন্য ধর্মের বিষয়ে কটুক্তি করা সত্যিই অপরাধ। এমন একটি নেক্কার জনক ঘটনার নিন্দা জানায়।
এবিষয়ে আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ইসলামী চিন্তাবিদ ও কুরআন-হাদীস ব্যাখাকারী হাফেজ ক্বারী মাওলানা মোঃ আব্বাস উদ্দীন আজাদী জানান, “লাকুম দিনুকুম অলিয়াদিন” অর্থাৎ যার ধর্ম তার কাছে। ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত আনা কারো কাম্য নয়। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই। পাশাপাশি এই ধর্মীয় সহিংসতাকারীর কঠোর শাস্তি দাবি জানাই।
উপজেলা ইমাম সমিতির সভাপতি হাফেজ আব্দুস সাত্তার জানান, মহানবী হযরত মোহাম্মাদ (সঃ) সারা মুসলিম জাহানের প্রিয় নবী। তাকে নিয়ে কটুক্তি করা সমগ্র মুসলমানদের অবমাননা করার সামিল। তাই আমি এই অপরাধীদের গ্রেফতার পূর্বক কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করি।
দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা জানান, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত আনার ঘটনায় একজন আটক হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।