দেবহাটায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ধাওয়া-পালটা ধাওয়া: আহত-২

0
436

স্টাফ রিপোর্টার:
আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধের জের ধরে দেবহাটা ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এঘটনা ঘটে। জানাযায়, ছাত্রলীগের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কেবিএ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফিফ হোসেন কলেজে গেলে কলেজ ছাত্র লীগের সভাপতি ফয়জুল্লাহ, সহ-সভাপতি মাসুদ রানা, পারুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সজিব হোসেন, বহিরাগত রতন হত্যার চেষ্টা মামলার অন্যতম আসামী ওলি উল্লাহ, ফয়জুল্লাহর চাচাত ভাই শাহারিয়ার সহ তার সঙ্গীরা আফিফকে পিটিয়ে জখম করে। পরে সাবেক কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রনিকে মাথায় আঘাত করে। এ ঘটনার সূত্র ধরে প্রায় দিনভর পারুলিয়া সখিপুর ব্রীজের উভয় পাশে দুই পক্ষের অবস্থান এবং উত্তেজনা বিরাজ করতে দেখা যায়। প্রত্যক্ষদর্শীদের কয়েজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কলেজ ছাত্রলীগের একটি পক্ষ দেবহাটা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কিছু নেতা কর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থী ও কলেজের শিক্ষকদের কে নানা ভাবে হুমকি, হয়রানী ও টর্চার করে আসছে। এঘটনার সূত্র ধরে রাত ৮টার দিকে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সুমনের পিতা খোকন প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হয়। এসময় আহত খোকনকে প্রথমে সখিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। এর প্রতিবাদে ছাত্রলীগের সভাপতি সুমনের গ্রুপ সখিপুর মোড়ে অবস্থান নেয় এবং রাস্তার উপর ট্রাক আড় করে যোগাযোগ ব্যাবস্থা বন্ধ করে দেয়। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে পরিস্থিতি সাভাবিক হয়।
এব্যাপারে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহা জানান, এটা নিজেদের মধ্যে আতœ কোন্দল। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক আছে। এখনো পর্যন্ত কোন পক্ষ অভিযোগ করিনি। তবে এঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার প্রক্রিয়া চলছে।