দুর্নীতির অভিযোগে পাতড়াবুনিয়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ ছুটিতে

0
374

পাইকগাছা প্রতিনিধি:
পাইকগাছায় আর্থিক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে জরুরী সভা ডেকে পাতড়াবুনিয়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওঃ আব্দুল গফুরকে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর চাপ ও শিক্ষকদের অব্যাহত ক্লাস বর্জনের মুখে ম্যানেজিং কমিটি জরুরী সভা ডেকে শর্ত দিয়ে সুপারকে এ ছুটিতে পাঠানো হয়। স্থানীয়রা এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং অপরদিকে শিক্ষকরা ক্লাসে ফিরেছেন বলে জানা গেছে। বুধবার দুপুরে মাদরাসার অফিস কক্ষে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ জরুরী সভায় এলাকার বিক্ষুব্দ মানুষ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বক্তব্য রাখেন, ইউনিয়ন আ’লীগের সম্পাদক এস,এম, আইয়ুব আলী, আলহাজ্ব আব্দুর রহিম গাইন, খোরশেদ গাইন, রবিউল ইসলাম, আবু তালেব, শিক্ষক আব্দুল মাজেদ, আব্দুল খালেক, আকরাম গাইন, ইসমাইল সানা, মোহাম্মদ তরফদার, দাউদ গাইন, সালাম মোল্লা, হাফিজুল গাইন, বি.এম শফি, গাউসুর রহমান প্রমুখ। এ সভায় শিক্ষকরা সহ স্থানীয় খোরশেদ গাইন, কেরামত গাইন অভিযোগ করেন, ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত মাদরাসাটি আজ ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে দাঁড়িয়েছে। আশির দশকে মাওঃ আব্দুল গফুর যোগদানের পর থেকে প্রতিষ্ঠানের ফান্ড তছরুপ, আলিম পর্যায়ে শিক্ষক নিয়োগের কথা বলে এ পর্যন্ত বহু শিক্ষিত বেকার যুবকের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রতারিত করেছেন। এ নিয়ে বহুবার ম্যানেজিং কমিটির সভা সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করলেও হুজুর সংশোধন হয়নি। এখন মাদরাসায় এমন পর্যায়ে পৌছিয়েছে যে, শিক্ষকরা ক্লাস বর্জন করছে এবং এলাকার মানুষ আরো বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। জরুরী সভায় অধ্যক্ষ মাওঃ আব্দুল গফুর আত্মপক্ষ সমর্থন করে জানান, এক মাসের মধ্যে রিজার্ভ ফান্ডে সমুদয় টাকা জমাদানের প্রতিশ্রæতি দিয়ে আরো বলেন এ পর্যন্ত আমি যা কিছু করেছি সবই মাদরাসার স্বার্থে। সর্বশেষ হুজুরকে এক সপ্তাহের ছুটিতে পাঠিয়ে মাওঃ আব্দুল মাজেদ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করবেন বলে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।