দিঘলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার রক্তদান

0
80

ফুলবাড়ীগেট প্রতিনিধি:
দিঘলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুল আলম মানবতার সেবায় গুরুতর অসুস্থ এক গৃহবধুকে রক্তদান করে এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক আলোচনায় এসেছেন। গত ১৫ সেপ্টেম্বর দিঘলিয়া গ্রামের গৃহবধু পপি খাতুন এর শারিরিক অসুস্থতার জন্য জরুরী ‘এ’ পজিটিভ রক্তের প্রয়োজন। যেটা দিঘলিয়া উন্নয়ন ফোরামের ফেসবুক গ্রুপ থেকে সামাজিক মাধ্যমে পোষ্ট দেওয়া হয়। বিষয়টি নজরে আসে দিঘলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুল ইসলামের। এরপর তিনি নিজেই রক্ত দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং কুয়েট রোডস্থ নিউ লাইফ প্যাথলজী এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে গত (১৮ সেপ্টেম্বর) শুক্রবার রাতে গুরুতর অসুস্থ গৃহবধু পপি খাতুনকে রক্তদান প্রদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দিঘলিয়া উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি আল-আমিন শেখ, সাধারণ সম্পাদক শাকিল মোড়ল, পরিচ্ছন্ন দিঘলিয়ার সদস্য সচিব সাজ্জাদ হোসেন সহ দিঘলিয়া উন্নয়ন ফোরামের সদস্যবৃন্দ। দিঘলিয়া উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি আল-আমিন শেখ বলেন, এমন একজন মানবতাবাদি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে পেয়ে দিঘলিয়াবাসি সত্যিই ভাগ্যবান। একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শত ব্যাস্ততার মধ্যেও মানব সেবায় রক্তদান করেছেন। তিনি আরো বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালিন সময়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন বাধন এর সক্রিয় সদস্য ছিলেন। ইতিপুর্বে ১৫বার মানবসেবায় রক্তদান করেছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুল আলম দিঘলিয়া উপজেলার সামাজিক সংগঠন দিঘলিয়া উন্নয়ন ফোরাম, আলোর মিছিল, পরিচ্ছন দিঘলিয়া, ব্রম্ম্যগাতি ব্লাড লাইন সহ সকল সামাজিক সংগঠনকে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানান। উল্লেখ্য, করোনা কালিন সময়ে সামাজিক সংগঠন দিঘলিয়া উন্নয়ন ফোরাম ৯৮ ব্যাগ রক্তের ব্যবস্থা করে অসহায় মানুষের জন্য।