দাকোপে সেবাসপ্তাহে রুগীর সাথে ডাক্তারের দুর্ব্যবহার

0
290

আজিজুর রহমান, দাকোপ : খুলনার দাকোপ উপজেলায় পরিবার পরিকল্পনা সেবা সপ্তাহে সেবা নিতে আসা রুগীর সাথে ডাক্তারের দূর্ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। আলোচনার ঝড়ে এখন ডাক্তার। গত বুধবার (২১ মার্চ) ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।
ভুক্তভোগীদের সূত্রে জানাযায়, গত ২০মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত পরিবার পরিকল্পনা সেবা সপ্তাহ চলে। সেবা সপ্তাহে লাউডোব ইউনিয়নের নারী বিকাশ কেন্দ্রের নেত্রী অর্চনাকয়ালের সাথে স্থানীয় সন্ধ্যা বিশ্বাস(৩৩), শিল্পীশিকদার (৩২), দুলুমন্ডল ও মনিকামন্ডল (৩০) জন্ম নিয়ন্ত্রনের স্থায়ী ব্যবস্থা (টিউবেকটমি) গ্রহণ করার কথা জানান। এসময় তারা বলেন, তাঁদেও অপারেশন হবে কিন্তু সম্প্রতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের যে গাইনি বিভাগের ডাক্তারের ভূল অপারেশনে এক প্রসুতি মা মারা গেছে সেই ডাক্তার বাদে অন্য ডাক্তার দিয়ে টিউবেকটমি করাতে হবে। রুগীদেও কথা মত নেত্রী অর্চনাকয়াল এ বিষয়ে গত মঙ্গলবার (২০মার্চ) ফ্যামিলি প্লানিং মেডিকেল অফিসার (এমওএমসিএইচ) ডা. নিপারায়ের সাথে কথা বলেন। তখন ডা. ডনপা রায় তাকে বলেন অন্য ডাক্তার দিয়ে অপারেশন হবে, ২১ মার্চ রুগী নিয়ে আসেন। ডাক্তারের কথা মত অর্চনা উল্লেখিত ৪জন রুগীকে নিয়ে যথাসময়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। কিন্তু অপারেশন থিয়েটারে ঢোকার পূর্বে দেখেন, যে ডাক্তার দিয়ে অপারেশন করাবেন না বলেছিলেন সেই বিতর্কিত ডাক্তার অপারেশন করতে এসেছেন। তখন রুগীরা ও অর্চনা ডাক্তার নিপাকে অন্য ডাক্তারের ব্যবস্থা করতে বলায় বাধে গন্ডগোল। কথাকাটা-কাটির এক পর্যায়ে ডাক্তার নিপা উত্তেজিত হয়ে রুগী ও অর্চনাকে রুম থেকে বেরিয়ে যেতে বলেন এবং অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন। রুগীরা বাড়ি ফিওে এলাকায় ডাক্তারের অভদ্র আচরণের খবরটি দিলে বিষয়টি আলোচনায় রূপ নিয়েছে।
বিষয়টি জানার জন্য প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও এনজেন্ডা হেলথের ফারহানার কাছে মুঠোফোনে খবর নিলে তিনি বলেন, ঘটনার সময় আমি ছিলামনা তবে পওে শুনেছি।
ঘটনাটি জানার জন্য বারবার মুঠোফোনে উপজেলা ফ্যামিলি প্লানিং মেডিকেল অফিসার (এমওএমসিএইচ) ডা. নিপারায়কে ফোন করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
ডাক্তারের এধরণের দুর্ব্যবহারের সঠিক বিচার চেয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন লাউডোব নারী বিকাশ কেন্দ্রের নেত্রীরা।