দাকোপে প্রতিপক্ষের পিটুনিতে ইউপি সদস্য আহত

0
499

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনাটাইমস :
খুলনার দাকোপ উপজেলায় মো. কালাম শেখ নামের এক ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে উপজেলার লক্ষ্মীখোলা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। প্রতিপক্ষের হামলার শিকার হন তিলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নম্বর ওয়ার্ড (ইউপি) সদস্য। এ বিষয়ে ইউপি সদস্য বাদী হয়ে তিনজনের নাম উল্লেখসহ আরও ১০ থেকে ১৫ জন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির বিরুদ্ধে দাকোপ থানায় এজাহার দায়ের করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও দায়েরকৃত অভিযোগ সুত্রমতে, চারপাশে রোহিঙ্গার আতঙ্ক থাকায় ঘটনার দিনে লক্ষ্মীখোলা গ্রামে অজ্ঞাতনামা এক পাগল ঘোরাঘুরি করতে দেখে। মধ্যরাতে হামলাকারিরা রোহিঙ্গা সন্দেহে ওই পাগলকে লোহার রড় ও লোঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এসময় ডাকচিৎকারে ঘটনাস্থলে গেলে প্রতিপক্ষ উপজেলার লক্ষ্মীখোলা গ্রামের নওয়াব আলী শেখের ছেলে নাজমুল শেখ(৩৫), আলী খোকার ছেলে সিনবাদ শেখ(৩০), মৃত রাজ্জাক শেখের ছেলে মো. আলম শেখ(৪০) সহ আরও অজ্ঞাতনামা ১০ থেকে ১৫ জন দুর্বৃত্তরা পাগলের সঙ্গে বেধড়ক মারপিট করে আহত করেন ইউপি সদস্যকে।

ইউপি সদস্য মো. কালাম শেখ জানান, তারা পাগলটিকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করতে থাকে। ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞাতনামা পাগলকে উদ্ধার করতে গেলে হামলাকারি আমাকেও মারধর করে। তিনি আরও বলেন, হামলাকারিরা আমাকে উদ্দেশ্য করে বলে পাগলের সঙ্গে ওকেও পিটিয়ে হত্যা করা হবে। পরে এলাকাবাসি ছুটে এলে হামলাকারিরা আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। রক্তাক্ত জখম অবস্থায় পাগলটিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

দাকোপ থানার উপপরিদর্শক পলাশ কুমার দাশ খুলনাটাইমসকে বলেন, ওই ঘটনায় ইউপি সদস্যকে মারধর করেছে বলে একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে ঘটনাটির সত্যতা যাচাই করা হচ্ছে। প্রমাণিত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।