দাকোপে ঘুমের মধ্যে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

0
352
All-focus

নিজস্ব প্রতিবেদক :
খুলনার দাকোপ উপজেলার পানখালী এলাকায় নিখিল রায় (৫৫) নামের এক ব্যক্তিকে ঘুমের মধ্যে ধারলো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আগের শত্রুতার জের ধরে তাঁকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করছে।
সুত্রে জানা যায়, নিখিল রায় একজন খুচরা ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ি কাজ শেরে গত রোববার (৮ জুলাই) রাতে সম্প্রতি বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা দেখে বাসায় ফিরছিলেন। বাসায় ফিরে রাতের খাওয়া শেষ করে বিছানায় ঘুমাতে গেলে দা দিয়ে তাঁর গলায় কোপ দেন দুর্বৃত্তরা। এসময় কোপ ঠেকালে তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়। তাঁর চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। দা’র কোপে তাঁর ঘাড়ের বাঁ পাশ শিরোচ্ছেদ হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করান।
নিখিল বলেন, প্রতিদিনের মত ব্যবসায়িক কাজ শেষ করে রাতে বাড়ি ফেরি। রাত দুই’র দিকে ঘুমাতে গেলে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে দা ও দেশীয় অস্ত্রদ্বারা হামলা করে। তখন হামলাকারীর কথা শুনে এবং তার চলাচল দেখে আমি স্পষ্টভাবে চিনেছি, আমার পরিচিত বাড়ির পাশের জিন্নাত শেখের মাদকাসক্ত ছেলে মো. সিপার শেখ(২২) দা দিয়ে গলায় কোপ দেয়। চিৎকার দিলে পরিবারের লোকজন এগিয়ে আসে। এসময় সিপার পালিয়ে যেতে গেলে এলাকাবাসির হাতে পানখালী ফেরিঘাটে আটক হয়।
ঘটনার পর বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করেন। চিকিৎসাজনিত কারণে এজাহার দায়ের করতে বিলম্ব হয়। পরে মো. সিপার শেখসহ অজ্ঞাতনামা তিন-চার জনকে আসামী করে দাকোপ থানায় (ছয় নম্বর) মামলা দায়ের করা হয়।
থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাহাবুদ্দীন চৌধুরি মুঠোফোনে বলেন, মামলার আসামী সিপারকে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।