দক্ষিণের দশ জেলায় ৪১ হাজার মাদক মামলা বিচারাধীন -মাসে মামলা নিস্পত্তি ২২৬টি

0
434

নিজস্ব প্রতিবেদক:
দক্ষিণাঞ্চলে মাদক মামলা কমছে না। এ অঞ্চলের সীমান্ত দিয়ে ফেন্সিডিল, গাজা, মদ প্রবেশ করছে প্রতি সপ্তাহে। দক্ষিণাঞ্চলের দশ জেলায় ৪১ হাজার মাদক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। নিস্পত্তি হচ্ছে গড়ে ২২৬টি। মাদক নির্মূল করতে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর, পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবিকে মাসে কমপক্ষে একটি বড় অভিযান পরিচালনা করতে পরামর্শ দিয়েছে বিভাগীয় টাস্ক ফোস্ কর্তৃপক্ষ।
বিভাগীয় টাস্ক ফোস্ কমিটি সূত্র জানান, এ পর্যন্ত মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও পুলিশের দায়ের করা খুলনা জেলায় ৪ হাজার ৫৪২টি, বাগেরহাট জেলায় ১ হাজার ৫২৫টি, সাতক্ষীরা জেলায় ৩ হাজার ৬৭টি, যশোর জেলায় ১১ হাজার ২৮৮টি, ঝিনাইদহ জেলায় ৩ হাজার ২৬১টি, মাগুরা জেলায় ২ হাজার ২২৫টি, নড়াইল জেলায় ১ হাজার ৬৬১টি, কুষ্টিয়া জেলায় ৩ হাজার ২৩৭টি, চুয়াডাঙ্গা জেলায় ৩ হাজার ৩০১টি, মেহেরপুর জেলায় ১ হাজার ৩৯টি এবং কেএমপি’র দায়ের করা ৫ হাজার ৫৭৬টি মামলা বিচারধীন রয়েছে। জেলাগুলোতে প্রতি মাসে গড়ে ২২৬টি মামলা নিস্পত্তি হচ্ছে।
বিভাগীয় কমিশনার মোঃ লোকমান হোসেন মিয়া টাস্ক ফোস্রে সভায় সীমান্ত পথ ও নৌ পথে মাদক প্রবেশের প্রবনতা রোধ করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান।
দু’জেলা মাদক মুক্ত: মাগুরা ও নড়াইল জেলাকে মাদক মুক্ত করার জন্য ১৬টি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। পদক্ষেপের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সচেতনতা মূলক সভা, বিশেষ মোবাইল কোর্টের সংখ্যা বৃদ্ধি করা, মসজিদে ইমামের খুৎবার মাধ্যমে মাদক বিরোধী বয়ান ইত্যাদি।
খুলনায় ৬২ মাদ্রক সম্রাট গ্রেফতারের অভিযান: মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিপ্ততর জেলার ৬২ জন মাদক সম্রাট গ্রেফতার অভিযানে নেমেছে। তার মধ্যে ১৮ জন নারী। মাদক সম্রাটরা ইয়াবা, গাজা, ফেনসিডিল ব্যবসার সাথে জড়িত। অধিকাংশরাই টুটপাড়া, দৌলতপুর, খালিশপুর, কাস্টম ঘাট, বানিয়াখামার এলাকার অধিবাসী। প্রতিদিন গ্রেফতার অভিযান চলছে। পাশাপাশি বেনাপোল থেকে আগত কমিউটার ট্রেনে নিয়মিত মাদক বিরোধী অভিযান চলছে। মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ও মামলা নিষ্পত্তিতে জোরালো অভিযান চলছে।