ত্রাণ বিতারণে অনিয়ম হলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না-ডিসি মোস্তফা কামাল

0
324

আব্দুর রব লিটু, দেবহাটা: দেবহাটায় উপজেলায় করোনা প্রতিরোধে ত্রান, স্বাস্থ্যসেবা ও সামাজিক দূরত্ব বিষয়ক মতবিনিময় সভায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল বলেছেন ত্রাণ বিতরণে কোন প্রকার অনিয়ম হলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না। সাতক্ষীরা জেলার যে স্থানে অনিয়ম হবে তাৎক্ষনিক ব্যাবস্থা নেওয়া হবে। সরকারের দেওয়া বরাদ্দ সঠিক নিয়মে প্রকৃতদের মাঝে বণ্ঠন করতে হবে। ইতি মধ্যে সরকারের প্রদত্ত ৯০০ মেট্রিক টন চাউলের ৮৫০ মেট্রিক টন বিতরন করা শেষ হয়েছে। কোথাও কোন অনিয়মের খবর পাওয়া যায়নি। যদি কোথাও কোন অনিয়ম হয় আমাকে জানাবেন। আপনারা কেউ গুজবে কান দেবেন না। হতাশ হবেন না। আমরা প্রতিটি এলাকায় ত্রাণ কমিটির মাধ্যমে আপনাদের মাঝে সহায়তা পৌছে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহন করেছি। এ সময় তিনি করোনার প্রভাবে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে জেলার প্রতিটি এলাকায় এক হাত মাটি ফেলে না রাখার বিষয়ে কাজ করার পরামর্শ দেন। সব স্থানে সবজি ও ফলের আবাদ করতে হবে। এতে একদিকে পরিবেশ সবুজ হবে। সাথে পরিবার ও সমাজের চাহিদা মেটাবে। একই সাথে কোন কোন জলাশয় ফেলে রাখা যাবে না। মাছ চাষ করতে নির্দেশ দেন। খাদ্য ঘাট্টি না থাকে সে জন্য পরিকল্পিত ভাবে চাষ করতে হবে। একই সাথে তিনি আরো বলেন যারা দেশের ও জেলার বাহিরে থেকে এসেছেন আপনারা হোম কোয়ারেন্টাই মেনে চলবেন। সবাই যাতে এই নিময় মেনে চলে সে জন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। ভয় বা আতঙ্ক না পেয়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে। এছাড়া প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে ৩মাস ধরে লাগাতর প্রচারের মাধ্যমে মানুষকে সচেতন করে তোলার নির্দেশ দেন । যাতে মানুষ নিয়ম মেনে চলে। একই সাথে ত্রাণ সমন্বয়হীনতার বিষয়ে নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ দেন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান ডিসি। এদিকে, করোনা প্রতিরোধে যে সব সংগঠন কাজ করছে তাদের নিরাপত্তা ব্যাবস্থা ঠিক রেখে কাজ করার নির্দেশ দেন। ভাইরাস নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কেউ অপপ্রচার না করতে পারে সেজন্য প্রশাসনকে নজর রাখার জন্য অনুরোধ জানান। বুধবার বিকাল ৪ টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময়ে দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল। বিশেষ অতিথি ছিলেন দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা। এসময় দেবহাটা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নওয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবর রহমান, সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুল লতিফ, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জি.এম স্পর্শ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শরীফ মোহাম্মদ তিতুমীর, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতন, দেবহাটা ইউপি চেয়ারম্যান আবুবকর গাজী, পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যানর সাইফুল ইসলাম, কুলিয়া ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসাদুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শফিউল বশার, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা অধীর কুমার গাইন, উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা রাকিব ইসলাম, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটুসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় করোনা প্রতিরোধে ত্রান ও স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।