তালুকদার আব্দুল খালেকের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে মিথ্যাচার করছে খুলনা বিএনপি

0
440

খুলনা টাইমস প্রতিবেদক:
খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে (কেসিসি) আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেকের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে মিথ্যাচার ও অপপ্রচার করছে বিএনপি নেতৃবৃন্দ। হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দিয়ে খুলনাবাসীর সাথে প্রতারণা করেছে বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু।
মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় দলীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেকের মনোনয়ন বাতিলের দাবি জানিয়ে নজরুল ইসলাম মঞ্জু নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দাখিল করার প্রতিবাদে নগর ও জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন নেতৃবৃন্দ।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি বলেন, বিএনপি সিটি নির্বাচন নিয়ে অপপ্রচার শুরু করেছে। আমরা অপপ্রচারের রাজনীতি করিনা। বিধি মেনেই সকল কাজ করবো। বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছেন।
নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, আমি ৭৭ সাল থেকেই নির্বাচন করছি। সব নির্বাচনেই আমি হলফনামা দিয়েছি। কোনো সময় কোনো তথ্য গোপন করে হলফনামা জমা দেইনি। আমি ও আমার স্ত্রী একাধিকবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। লাভজনক যেসব প্রতিষ্ঠানের সাথে আমি জড়িত রয়েছি, সব কিছুর হিসাব দাখিল করেছি। এখানে চাতুরতার কোনো বিষয় নেই।
তিনি আরও বলেন, আমি হলফনামায় সাউথ-বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংক লিমিটেডের বিষয়ে উল্লেখ করেছি। আমার এলাকায় লখপুর গ্রুপের প্রতিষ্ঠান থাকায় সুপারিশ করে এলাকাবাসীর চাকরির ব্যবস্থা করেছি। লখপুর গ্রুপের সাথে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। ইউজিসি (বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন)’র নিয়মানুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান কোন আর্থিক সুবিধা পাইনা। পেলে অবশ্যই তা হলফনামায় উল্লেখ করতাম।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ বলেন, ইট মারলে পাটকেল খেতে হবে। আমরা এমন রাজনীতি করিনা। নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে আমরা এখন ঐক্যবদ্ধ।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এসএম কামাল হোসেন বলেন, বর্তমান সময়ে পাজেরো গাড়ি চালিয়ে, আলিশান বাড়িতে থেকে, ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া শিখিয়ে ১৫/১৬ হাজার টাকায় চলা যায় না তা সবাই জানেন। তাহলে কি আমরা ধরে নেবো যে নজরুল ইসলাম মঞ্জুর অবৈধ ব্যবসা আছে? অথবা তালুকদার আব্দুল খালেক মেয়র থাকা অবস্থায় যে ৭শ’ কোটি টাকা রেখে এসেছিলেন তা বর্তমান মেয়র মনি ও মঞ্জু ভাগবাটোয়ারা করে খেয়েছেন?
নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আমরা নৌকার প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেককে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছি। আমাদের মধ্যে কোন বিভেদ নেই। নির্বাচনী আচরণবিধি মেনেই আমরা কাজ করছি।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা কাজি আমিনুল হক, এমডিএ বাবুল রানা, মকবুল হোসেন মিন্টু, মুন্সী মাহবুব আলম সোহাগ, এ্যাড. ফরিদ আহমেদ, জোবায়ের আহমেদ খান জবা, মফিদুল ইসলাম টুটুল, মোস্তফা সরোয়ার, যুবলীগ নেতা শফিকুর রহমান পলাশ, আ’লীগ নেতা আলমগীর সরদার প্রমুখ।