তালায় যৌতুকের দাবিতে ৭ ঘন্টার ব্যবধানে দু’গৃবধূকে পিটিয়ে হত্যা

0
474

এম আর জামান টিপু, তালা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরা তালায় মাত্র ৭ ঘটনার ব্যবধানে যৌতুকের দাবিতে দু’গৃবধুকে পিটিয়ে হত্যা অত:পর বিষপানে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সর্বশেষ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মুড়াগাছা এলাকায়। গত বৃহস্পতিবার রাতের যেকোন সময় গৃহবধু রেহেনা বেগম (৩০) কীটনাশক পান করলে রাত পৌনে ১১ টার দিকে তাকে তালা হাসপাতালে নেয়া হয়। কর্তব্যরত ডাক্তার জানান,তাকে হাসপাতালে নেয়ার আরো প্রায় পৌনে ১ ঘন্টা আগে তার মৃত্যু হয়েছে। রাতেই মৃতের শ্বশুরকে হাসপাতালে রেখে অন্যান্যরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ শুক্রবার সকালে হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে সুরোতহাল রিপোর্ট শেষে থানায় নিয়েছে। পুলিশ বলছে, লাশের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। রেহেনা মুড়াগাছার আসমাতুল্লা শেখ’র স্ত্রী ও একই উপজেলার খলিশখালীর মোকলেন্দুকাটির শেখ আশরাফ হোসেনের মেয়ে।
রেহেনার পিত্রালয়ের দাবি,প্রায়ই যৌতুকের দাবিতে তাকে তার স্বামীসহ স্বজনরা শারীরীক ও মানষিক নির্যাতন করতো। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার রাতে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। অবস্থা বেগতিক দেখে তার মুখে বিষ ঢেলে আতœহত্যা বলে প্রচার করতে হাসপাতালে নেয়। রেহেনার ইব্রাহীম(৬) নামের একটি ছেলে রয়েছে।
এরআগে এক সন্তানের জননী বিলকিস (২২) নামের এক গৃহবধুকে জোরপূর্বক কীটনাশক পান করিয়ে হত্যার অভিযোগ করেছেন নিহতের ভাই শরিফুল ইসলাম। বিলকিস উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের কবির শেখ’র স্ত্রী ও ফুলবাড়িয়া গ্রামের মতলেব সরদারের মেয়ে। নিহত বিলকিসের মাহী (৩) নামে একটি মেয়ে রয়েছে।
তালা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মেহেদী রাসেল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন,এঘটনায় থানায় পৃথক দুটি অপমৃত্যু মামলা রুজু ও লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।