তালায় ব্যর্থ প্রেমে নিজ শরীরে আগুণ জ্বালানো প্রেমিক বিশ্বজিতের মৃত্যু

0
418

তালা প্রতিনিধি:
প্রেমে ব্যর্থ হয়ে নিজ শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগািনো বিশ্বজিৎ দে (২২) মৃত্যুর সাথে ৫ দিন পাঞ্জা লড়ে অবশেষে খুমেক বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় মৃত্যু বরণ করেছেন।
শনিবার (৩১ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার গোপালপুরের সন্তোষ দে’র ছেলে বিশ্বজিৎ দে উপজেলার হরিশচন্দ্রকাটি ঋষিপাড়ায় প্রেমিকার বাড়িতে গিয়ে তার নাম ধরে ডাকাডাকির একপর্যায়ে কারো কোন সাড়া না পেয়ে সে নিজ শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে দেয়।
স্থানীয়রা জানান, বিশ্বজিৎ দের সাথে হরিশচন্দ্রকাটির জনৈকা কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। শুক্রবার বিশ্বজিৎ প্রেমিকা ও তার পরিবারকে তাদের সম্পর্কের ব্যাপারে বোঝাতে তার কয়েকজন বন্ধুকে পাঠায় তাদের বাড়িতে। তবে ফলাফল উল্টো হয়েছে। এ সময় প্রেমিকার বাড়ির লোকজন তাদেরকে ধরে মারপিট করে।
এ ঘটনার প্রেক্ষিতে শনিবার (৩১ আগস্ট) বিশ্বজিৎ নিজে প্রেমিকার বাড়িতে গিয়ে ডাকাডাকি করতে থাকে। কিন্তু এতে বাড়ির কারো কোন সাড়া না পাওয়ার এক পর্যায়ে সে নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে বিশ্বজিতের সারা শরীরে আগুণ ধরে গেলে সে নিজেই পার্শ্ববর্তী পুকুরে লাফ দেয়। এতে প্রাণে সে বেঁচে গেলেও তার শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকাল আনুমানিক ১০ টার দিকে বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।
তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মেহেদী রাসেল মুত্যুর খবরটি নিশ্চিত করে বলেন অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।