তালায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার! পরিবারের দাবী হত্যা

0
138

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

সাতক্ষীরার তালায় সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা সালমা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূর ঝুলান্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের চর কানাইদিয়া গ্রামের রোস্তম গাজীর স্ত্রী এবং একই ইউনিয়নের জেঠুয়া গ্রামের গওহর গাজীর মেয়ে।

শুক্রবার (২৮ মে) দুপুরে চরকানাইদিয়া গ্রামের নিজ ঘরের মধ্যো থেকে শাড়ি দিয়ে প্যাচানো অবস্থায় ঐ গৃহবধুর লাশটি উদ্ধার করা হয়। তবে নিহতের পরিবারের দাবী, পারিবারিক কলহের জের ধরে তাকে হত্যা করে ঝুঁলিয়ে দেয়া হয়েছে।ঘটনার পর নিহতের স্বামী রোস্তম গাজী গাজীকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি। শুক্রবার(২৮মে) বিকালে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরে সালমা ও তার স্বামীর মধ্যে পারিবারিক কলহ-বিবাদ চলে আসছিল। ঝগড়া মেটাতে কয়েক বার সালিশী বেঠক হয়। ঘটনার আগের দিন বৃহস্পতিবারও ঝগড়া মেটাতে সালিশ বসে।পরের দিন শুক্রবার জুম্মার নামাজ পড়ে আসার পর ঘরে তার ঝুলান্ত লাশ পাওয়া যায়। তাদের সংসারে ৫ বছরের একটি ছেলে রয়েছে। নিহতের পিতা গওহর গাজী জানান, তার মেয়ে সালমা সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল। প্রায়ই স্বামীর সাথে তার ঝগড়া হতো। তাকে মারধরও করতো। কয়েকবার বসাবসিও হয়েছে। কিন্তু কোন সমাধান হয়নি।

শুক্রবার দুপুরে তার মেয়েকে হত্যা করে লাশ ঝুঁলিয়ে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।এসময় তিনি তার মেয়ে হত্যার সুষ্ঠ বিচার দাবী করেন। জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান এম মফিদুল হক লিটু বলেন, তিনি খবর শুনে উক্ত বাড়িতে গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশটি দেখেন। পরে থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হয়।

তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মেহেদী রাসেল লাশটি উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ সাতক্ষীরা মর্গে পাঠানো হবে। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা ময়না তদন্ত রিপোর্ট আসার পর সেটি জানা যাবে।

খুলনা টাইমস/এমআইআর