তালার হরিহরনগরে চোরাই মালামালসহ যুবক আটক

0
339

তালা প্রতিনিধি:
তালার হরিহর নগর এলাকার মাওলানা মোঃ নুর উদ্দিনের ছেলে রাসেল’র বাড়ি থেকে চুরি করে পালানোর সময় চোরের পিছু নিয়ে একই এলাকার কাইমুল ইসলাম (৩৬) নামে এক দূর্র্ধষ চোরকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করেছে এলাকাবাসী। ধৃত কাইমুল এলাকার জিল্লাহ গোলদারের ছেলে। দীর্ঘ দিন যাবৎ সে তার মামার বাড়ি উপজেলার মুড়াগাছায় বসবাস করে আসছিল। এলাকাবাসী জানায়,সেখানে থেকেই সে বিভিন্ন এলাকায় চুরি,ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে আসছিল।
এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্র জানায়,বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আনুমানিক দেড় টার দিকে কাইমুল উপজেলার হরিহরনগর গ্রামের মাওলানা মোঃ নুর উদ্দিনের ছেলে রাসেল’র বাড়িতে ঢুকে বাইরের বাল্ব খুলে ঘরের আবজানো দরজা ঠেলে ভেতরে প্রবেশ করে ঘরের আলমারী থেকে নগত ২৫ হাজার টাকা,১টি বিদেশী লাইট, একটি স্মার্ট ফোন সহ ঘরের মধ্যে রক্ষিত সিট-কাপড়সহ প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে নির্বঘেœ পালিয়ে যাচ্ছিল। বিষয়টি বাইরে ঘুমন্ত বাড়ির মালিকের ছেলে রাসেল বিষয়টি বুঝতে পেরে চিৎকার দিয়ে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের সাথে নিয়ে চোরের পিছু নেয়। এক পর্যায়ে কাইমুলের ঘেরের বাসার কাছাকাছি পৌছালে সেখান থেকে কাউকে পালিয়ে যেতে দেখে তাদের সন্দেহ হলে ঐ বাসায় তল্লাশী চালিয়ে চুরি যাওয়া মালামাল দেখতে পায়। রাতেই তারা সেখানে অবস্থান নিয়ে সকাল অবধি কাইমুলের বাসায় ফেরার অপেক্ষা করতে থাকে। এক পর্যায়ে সকাল আনুমানিক সকাল ৭ টার দিকে বাসায় ঢোকার আগ মূহুতে এলাকাবাসী তার দিকে এগিয়ে গেলে সে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়।
এরপর তাকে ধরে পিটুনি দিলে কাইয়ুম নিজে চুরি না করলেও কারা চুরির সাথে জড়িত রয়েছে তা বের করে দেয়ার প্রতিশ্রæতি দেয়। এরপর সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে এলাকাবাসী তাকে স্থানীেয় খেশরা পুলিশ ফাঁড়িতে সোর্পদ করে। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাকে খেশরা পুলিশ ফাঁড়িতে জিজ্ঞাসাবাদ চলছিল।এদিকে তাকে ছাড়িয়ে নেয়ার জন্য এলাকার একটি মহল তদ্বির অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছিল।এলাকাবাসী জানায়,কাইয়ুম একজন চিহ্নিত বনদস্যু ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। এরআগে তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায়েএকাধিক মামলা ছিল।এলাকাবাসী জানায়, এরআগে সে শালিখা বাজারের জনৈক রাসেলের দোকান থেকে ৪০ হাজার টাকা মূল্যের এলইডি টিভি, শাহপুর বাজারের জনৈক উজির মোড়লের দোকান থেকে মনিটর, হরিহর নগরের জনৈক ফিরোজ সরদারের বাড়ি থেকে সেলাই মেশিনসহ পার্শ্ববর্তী পাইকগাছা উপজেলার কাটিপাড়া গ্রামের মনোরঞ্জন দাশের ছেলে প্রভাত দাশের দোকান থেকে ২০ হাজার টাকার মালামাল চুরি করে। এছাড়া ২ বছর আগে ২টি অস্ত্রসহ খুলনার কয়রা থানায় আটক হয়।