ঢাবিতে ছাত্রদলের কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদ খুলনা মহানগর বিএনপির

0
292

খবর বিজ্ঞপ্তি:
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের গুন্ডাবাহিনীর নৃশংস হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন খুলনা মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ। সোমবার বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, এই হামলা আওয়ামী বাকশালী ছাত্রলীগের একদলীয় কর্তৃত্ববাদী শাসনের বহিঃপ্রকাশ। রাষ্ট্র ও সমাজ থেকে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার মতো ছাত্রলীগ শিক্ষাঙ্গনে গণতান্ত্রিক পরিবেশ বজায় রাখতে চায় না। ক্যাম্পাসে গণতান্ত্রিক পরিবেশ বিদ্যমান থাকলে ঐক্যবদ্ধ ছাত্রসমাজ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য সর্বশক্তি নিয়োগ করবে। এই ভয়ে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ এখন লাঠিয়ালের ভূমিকা পালন করছে বলে নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ছাত্রলীগের হাতে বইখাতা, কলমের পরিবর্তে অস্ত্র ও মাদক তুলে দেয়ার কারণেই শিক্ষাঙ্গনগুলো রক্তাক্ত এবং তারা নিজেরা মহাচাঁদাবাজ হিসেবে অভিসিক্ত হয়েছে। ছাত্রলীগ এখন সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অঘোষিত শাসকে পরিণত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন নেতৃবৃন্দ। শান্তিপুর্ণ সহাবস্থান ও গণতান্ত্রিক রাজনীতি চর্চায় ছাত্রলীঘ বিশ্বাসী নয়; তারা বেপরোয়া চাঁদাবাজী, ভর্তি ও সিট বাণিজ্য, নকল ও প্রশ্নপত্র ফাঁস বাণিজ্যে লিপ্ত।
এ হামলায় জড়িত দৃষ্কুতিকারীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শান্তি দাবি জানিয়ে আহত ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দের সুস্থতা কামনা করে বিবৃতিদাতারা হলেন খুলনা মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, সৈয়দা নার্গিস আলী, মীর কায়সেদ আলী, মোশাররফ হোসেন, জাফরউল¬াহ্ খান সাচ্চু, স ম আব্দুর রহমান, জলিল খান কামাল, শেখ ইকবাল হোসেন, এ্যাড. বজলুর রহমান, এ্যাড. ফজলে হালিম লিটন, এ্যাড. এসআর ফারুক, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, মাহবুব কায়সার, ইকবাল হোসেন খোকন, আসাদুজ্জামান মুরাদ ও আরিফুর রহমান মিঠু প্রমুখ।