ঢাকা থেকে পালানো সেই করোনা রোগী আশাশুনির মহাজনপুর থেকে উদ্ধার

0
321

মইনুল ইসলাম, আশাশুনি:
ঢাকা থেকে আশাশুনিতে পালিয়ে আসা করোনা রোগীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এএসপি (দেবহাটা সার্কেল) আলহাজ্ব শেখ ইয়াছিন আলীর নেতৃত্বে বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে কুল্যা ইউনিয়নের মহাজনপুর ফুটবল মাঠ এলাকার একটি মৎস্য ঘেরের বাসা থেকে তার স্বামী সোহেল ও তাকে উদ্ধার করা হয়। উল্লেখ্য, ঢাকা থেকে পালানো করোনা আক্রান্ত এক রোগীকে শনাক্তে প্রযুক্তি ব্যবহার করে ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তার অবস্থান শনাক্ত করে পুলিশ। করোনা আক্রান্ত ওই রোগী আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের বেউলা পশ্চিমপাড়া এলাকার জামাল মোড়লের মেয়ে নিলুফা ইয়াসমিন (২৪)। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) থেকে মোবাইল ফোন ট্র্যাংকিংয়ের মাধ্যমে তার অবস্থান শনাক্ত করে একটি ফোন নম্বর ও বাড়ির হোল্ডিং নম্বর দেয়া হয়েছিলো। তবে সেই বাড়িতে গিয়ে বাড়ি তালাবদ্ধ অবস্থায় পান আশাশুনি থানা পুলিশ। পরবর্তীতে স্থানীয়দের মারফত জানা যায় তার নানা বাড়ি কুল্যা ইউনিয়নের ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামে গিয়েছেন। সেখানে গিয়েও করোনা আক্রান্ত সেই রোগীকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। পরে তাকে এসপি (দেবহাটা সার্কেল) আলহাজ্ব শেখ ইয়াছিন আলীর নেতৃত্বে মহাজনপুর ফুটবল মাঠ এলাকার একটি মৎস্য ঘেরের বাসা থেকে উদ্ধার করা হয়। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (১০.৪৫ মিনিট) মহাজনপুর রাস্তায় এ্যাম্বুলেন্স এর অপেক্ষায় রোগীকে রাখা হয়েছিল।
এদিকে, করোনা রোগী সকাল বেউলা গ্রামের বাড়ী প্রায় ৩ ঘন্টা অবস্থান করায় ওই এলাকা লকডাউন করা হয়েছে বলে জানাগেছে।