ডোরিয়ান: নর্থ ক্যারোলাইনার দ্বীপে ‘আটকা কয়েকশ’

0
325

খুলনাটাইমস বিদেশ : ঘূর্ণিঝড় ডোরিয়ান আঘাত হানার পর বাড়তে থাকা বন্যার পানিতে যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলাইনার একটি দ্বীপের কয়েকশ বাসিন্দা আটকে পড়েছে বলে অঙ্গরাজ্যটির সরকার ধারণা করছে।বাহামাসে তাÐব চালিয়ে, অন্তত ৩০ জনের প্রাণহানি ঘটানোর কয়েকদিন পর শক্তি হারিয়ে শুক্রবার আটলান্টিক থেকে উদ্ভূত ঝড়টি যুক্তরাষ্ট্রের পর্যটকধন্য কয়েকটি দ্বীপে আছড়ে পড়ে বলে বিবিসি জানিয়েছে।নর্থ ক্যারোলাইনার গভর্নর রয় কুপার ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ওক্রাকোক দ্বীপের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছেন।ডোরিয়ান আঘাত হানার পর ওই দ্বীপটিতে অন্তত ৮০০ লোক ‘আটকে আছে’ বলে খবর পাওয়া গেছে।গত সপ্তাহে ৫ মাত্রার শক্তি নিয়ে বাহামাসে আছড়ে পড়া এ ঝড়ে ক্যারিবীয় দেশটিতে এখনও কতজন নিখোঁজ, তা বের করা সম্ভব হয়নি।নিখোঁজের এ সংখ্যা কয়েকশ থেকে কয়েক হাজার হতে পারে বলে ধারণা দ্বীপপুঞ্জটির সরকারের; যে কারণে মৃতের চ‚ড়ান্ত সংখ্যা ‘অবিশ্বাস্য রকমের বেশি’ হতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে।সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত আবাকো দ্বীপে কর্তৃপক্ষ মৃতদেহ মুড়ে রাখার অতিরিক্ত ২০০টি ব্যাগ পাঠিয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।বাহামাসের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডুয়ানে স্যান্ডস ডোরিয়ানে নিহতের সংখ্যা ‘হতভম্ব করে দিতে’ পারে বলে সতর্ক করেছেন।শক্তি হারানো ডোরিয়ান শুক্রবার স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে ঘণ্টায় ৯০ মাইল গতির বাতাস নিয়ে কেপ হাটেরাসে আঘাত হানে। ঘণ্টা দুই পরেই ঝড়টির চোখ সরে যায় ৫০ মাইল উত্তর-পূর্ব দিকে।নর্থ ক্যারোলাইনার গভর্নর কুপার ওক্রাকোকে বাসিন্দাদের আটকে থাকার খবরে ‘গভীর উদ্বেগ’ জানিয়ে তাদেরকে উঁচু এলাকায় সরে আসতে পরামর্শ দিয়েছেন।দ্বীপটিতে প্রবেশ করা সম্ভব হওয়া মাত্রই সেখানে উদ্ধারকারী দল মোতায়েন করা হবে, বলেছেন তিনি।স্থানীয় আবহাওয়া কর্মকর্তারা ডোরিয়ানের প্রভাবে ওক্রাকোকে ভয়াবহ বন্যার ভিডিও অনলাইনে পোস্ট করেছেন।ঘণ্টায় ১৭ মাইল গতির বাতাস নিয়ে ১ মাত্রার ঝড় ডোরিয়ান এখন আরও উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হচ্ছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার। শনিবার এটি কানাডার নোভা স্কোশিয়া প্রদেশে আঘাত হানবে বলে অনুমান করা হচ্ছে।ঝড়ের পথে থাকা ভার্জিনিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর বাসিন্দাদের সতর্ক থাকতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।কর্তৃপক্ষ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় তিনজন ও নর্থ ক্যারোলাইনাতে একজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। চারজনই ঝড়ের কবল থেকে বাঁচার প্রস্তুতি নিতে গিয়েই মারা পড়েছেন, জানিয়েছে তারা।ডোরিয়ানের কারণে জর্জিয়া, সাউথ ক্যারোলাইনা ও নর্থ ক্যারোলাইনায় ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। তিন অঙ্গরাজ্যের বিস্তৃত এলাকা বিদ্যুৎবিচ্ছিন্নও হয়ে আছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো।