ডুমুরিয়া হাসপাতালে ৫দিন পানি না থাকায় রোগীর দূর্ভোগ চরমে

0
375

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি:
ডুমুরিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত ৫দিন ধরে পানি সরবরাহ না থাকায় চরম দূর্ভোগে পড়েছে রোগীরা। সাথে ভোগান্তীতে পড়েছে ডাক্তার ও নার্সেরা।পানির অভাবে টয়লেট গুলোর বর্জের দূর্গন্ধে গোটা হাসপাতালটাই যেন একটি রোগী হয়ে পড়েছে। হাসপাতালে ব্যবহারিত মটরটি জ্বলে যাওয়ায় এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে,যার সমাধান হতে আরও দু’একদিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ । সরেজমিনে গিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও ভর্তি রোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায়,উপজেলা ৫০শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গতকাল রবিবার পর্যন্ত নানা রোগে ৩৮ জন রোগী ভর্তি ছিলো। যার মধ্যে ৯ জন ডায়রিয়ার রোগী।
কিন্তু গত ৫দিন ধরে কোন পানি সাপ্লাই না থাকায় প্রতিটা রোগীকে অতি কষ্টে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে। পানি সরবরাহ না থাকায় টয়লেট গুলো মারাত্বক দূর্গন্ধে পরিবেশ দূষিত হয়ে পড়েছে।হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আঃ সালাম,সেলিম শেখ,আয়েশা বেগম ও তাদের স্বজনরা জানান নিচ থেকে পানি নিয়ে কোন রকম কাজ চালিয়ে নিচ্ছি। এত কষ্ট ও দূর্গন্ধ সহ্য করা কঠিন হয়ে পড়েছে।কথা হয় ডাঃ প্রার্থনা রানী সূত্রধর,নার্স লিপিকা মন্ডল,স্বস্তিকা মল্লিকসহ অনেকের সাথে তারা জানান ডায়রিয়া রোগী দেখার পর হাত ধৌত করতে না পারায় নিজেরাই যেন ডায়রিয়া আতঙ্কে রয়েছি। এ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জামাল মিয়া শোভন বলেন,গত বৃহস্পতিবার বিকেলে মটর জ্বলে যাওয়ার পর এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি ওই দিনই লিখিত ভাবে জেলা স্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদপ্তরে অবহিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে কথা হয় জেলা স্বাস্থ্য প্রকৌশলী আবু বাছের’র সাথে। তিনি বলেন বিষয়টি অবহিত’র পর দফায় দফায় ম্যাকানিক পাঠিয়ে ব্যর্থ হয়েছি। সাব-মারসিবল পাম্প যার মূল্য ৩ লক্ষ টাকা,ইচ্ছা করলেই পরিবর্তন সম্ভব নয়। তবে আগামী ২/৩ দিনের মধ্যে মেরামত করে এর সমাধান করা হবে।