ডুমুরিয়ায় যাত্রীবাহী বাসের চাকায় প্রাণ গেল শিশুসহ ৩ জনের

0
368

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ডুমুরিয়ায় যাত্রীবাহী বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে শিশুসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। ওই একই বাসের ধাক্কায় মাহেন্দ্র চালকসহ আরো ১০জন আহত হয়েছেন। আজ শনিবার দুপুর পৌঁনে ১টার দিকে ডুমুরিয়া উপজেলার খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের মাঝেরভেঁড়ি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, ভ্যান চালক আসাদুল মোড়ল (৩৫), তিনি ডুমুরিয়া উপজেলার গুটুদিয়া গ্রামের মৃত কাদের মোড়লের ছেলে। ওই ভ্যানের যাত্রী নারায়ণ মণ্ডল (৬৫), তার বাড়িও গুটুদিয়া গ্রামে। নিহত আরকজন হলো- শাকিবুল ইসলাম (৭), সে উপজেলার উলা গ্রামের হুমায়ুন কবিরের ছেলে। নিহতরা উপজেলা সদর থেকে গুটুদিয়া গ্রামে যাচ্ছিলেন। আহতদের ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ও খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা ও পুলিশ জানায়, পাইকগাছা থেকে ছেড়ে আসা একটি যাত্রীবাহী বাস খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের মাঝেরভেঁড়ি নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে একটি মাহেন্দ্রকে ধাক্কা দেয়। এতে মাহেন্দ্রটি রাস্তার পাশে ছিটকে পড়ে। পরে বাসটি একটি চলন্ত যাত্রীবাহী ভ্যানকে চাপা দেয়। এতে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই ভ্যান চালক আসাদুল মোড়ল ও ভ্যানের যাত্রী ডিম বিক্রেতা নারায়ণ মণ্ডল মারা যান। এছাড়া গুরুতর আহত মাহন্দ্রেযাত্রী শাকিবুল ইসলামকে ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাবিল হোসেন সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।