ডুমুরিয়ায় যাত্রীবাহী বাস খালে ১৪ যাত্রী আহত

0
263

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি:
ডুমুরিয়ায় গতকাল বুধবার দুপুরে মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় কমপক্ষে ১৪ জন আহত হয়েছে। খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের ডুমুরিয়ার মেছাঘোনা নামক স্থানে এ দূর্ঘটনাটি ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, খুলনা থেকে ছেড়ে আসা শ্যামনগর গামী বিআরটিসি ঢাকা মেট্রো ব-১১-২০১১ নম্বর যাত্রীবাহী বাসটি গতকাল দুপুর একটায় ডুমুরিয়ার মেছাঘোনা নামক স্থানে পৌঁছালে গাড়ীটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার ডান পাশে একটি গাছের সাথে আঘাত করলে যাত্রীসহ খালে পড়ে যায়। এ সময় গাড়ীর ভিতরে থাকা মুন্সিঞ্জের দক্ষিন কদমতলার জগন্নাথ মন্ডল (৩১), শ্যামনগরের আনসার আলীর স্ত্রী জাহানারা বেগম (২৮), ছবির তরফদারের ছেলে আকতার তরফদার (৪০), আমজাদ আলীর ছেলে ছালাম ফারুক (৪৫), মানিকপুরের নুর ইসলাম গাজীর স্ত্রী জবেদা বেগম (৩৭), কালিগঞ্জের পিয়ার আলীর স্ত্রী ছালেহা বেগম (৫০), ডুমুরিয়ার মেছাঘোনার মাহাবুর রহমানের ছেলে মেহেদী হাসান (২৫), শ্যামনগরের নিমাই মন্ডলের মেয়ে নিবেদিতা মন্ডল (২০), মৌতলার ইউসুফ আলীর ছেলে রাকিব হোসেন (২২), মোংলা বানিশান্তার সুনিল বাওয়ালীর ছেলে উত্তম বাওয়ালী (৩৩), সাতক্ষীরার আনছার সানার মেয়ে মুন্নি খাতুন (২০), খুলনা খালিশপুরের আমজাদ আলীর ছেলে ওমর ফারুক (৪৫), শ্যামনগরের ধুমঘাট’র মাজেদ গাজীর মেয়ে তাছলিমা বেগম (৪৮), গুটুদিয়ার নজরুল ইসলামের স্ত্রী সুফিয়া বেগম (৫০), মানিকপুরের জবেদ গাজীর স্ত্রী জরিনা বেগম (৫৫), ও সাতক্ষীরার আটুলিয়ার মাহমুদ মোল্যার স্ত্রী ইয়ারুন্নেছা (৪০) নামে ১৪ জন যাত্রী আহত হয়। খবর পেয়ে ডুমুরিয়া ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা দ্রæত ঘটনাস্থল গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে ডুমুরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ নিলাঞ্জন কুমার ঘোষ বলেন, আহতদের মধ্যে পাঁচজন চিকিৎসাধীন রয়েছে অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে ওমর ফারুক এর অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। দূর্ঘটনা কবলিত বাসটি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে বলে জানা গেছে।#