ডুমুরিয়ায় বাসের ধাক্কায় নসিমন যাত্রী কৃষক নিহত : আহত ২

0
287

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি, খুলনাটাইমস :
নসিমন যোগে সার নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না কৃষক কৃষ্ণপদ মিস্ত্রির। পেছন দিক দিয়ে বেপোরোয়া গতিতে আসা ঘাতক যাত্রীবাহি বাসে কেড়ে নিলো তার প্রাণ। সে ডুমুরিয়া উপজেলা বৈঠাহারা গ্রামের ধীরেন্দ্রনাথ মিস্ত্রির ছেলে। তাকে আশংকজনক অবস্থায় খুমেক হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষনা করেন।
এসময় নসিমন চালকসহ আরো এক কৃষক গুরুতর আহত হয়। তাদের মধ্যে আহত কৃষক তপনকে ডুমুরিয়া হাসপাতালে এবং নসিমন চালক কীরণকে চুকনগরে এক ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের বরাতিয়া নামকস্থানে এঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও হাসপাতাল সুত্রে জানা যায়, ডুমুরিয়া উপজেলার বৈঠাহারা গ্রামের ধীরেন্দ্রনাথ মিস্ত্রির ছেলে কৃষ্ণপদ মিস্ত্রি(৫০) ও পারমাদারতলা গ্রামের পরিমল মন্ডলের ছেলে তপন মন্ডল(৩৫) নামের দুই কৃষক বুধবার দুপুরে খর্ণিয়া বাজার থেকে ৫ বস্তা সার কিনে নসিমনযোগে গন্তব্যে ফিরছিলো।
নসিমনটি খর্ণিয়া ব্রীজ পার হয়ে আনুমানিক ২’শ গজ দুরে বরাতিয়া নামকস্থানে পৌঁছালে পাইকগাছাগামী (খুলনা ব-৯৯০) একটি যাত্রীবাহি বাস পেছন দিয়ে নসিমনে ধাক্কা দেয়। এসময়ে নসিমন থেকে ছিটকে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে কৃষক কৃষ্ণপদ মিস্ত্রির মৃত্যু হয়।
এছাড়া কৃষক তপন মন্ডল ও নসিমন চালক কীরণ সরদার(৪৫) গুরুতর আহত হয়। এ প্রসঙ্গে খর্ণিয়া হাইওয়ে ফাড়ি পুলিশের এসআই শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, দুর্ঘটনার খবর শুনে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আহতদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাই এবং ঘাতক বাস ও নসিমনটি ফাড়ি হেফাজতে রয়েছে।
#