ডুমুরিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে এনজিও কর্মীর আত্মহত্যা

0
309

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি
ডুমুরিয়ায় স্বামীর উপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক এনজিও কর্মী। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার আঙ্গারদহা আশা এনজিও অফিসের দ্বিতল ভবনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, ফুলতলা উপজেলার দাউকোনা গ্রামস্থ আবুল কাশেম সরদারের মেয়ে সায়মা সুলতানা (২৫) আঙ্গারদহা আশা নামক এনজিও অফিসে স্বাস্থ্য বিভাগে স্বাস্থ্য সহকারী পদে কর্মরত ছিলেন। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সায়মা সুলতানা মনিরামপুর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামস্থ জবেদ আলী বিশ্বাসের ছেলে মইনুল ইসলামের সাথে মোবাইল ফোনের প্রেমের জের ধরে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। সায়মার মামা বিএম রিজাউল করিম জানান, বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকতো। তিনি আরোও জানান, ঘটনার দিন সকাল ৯টার দিকে সায়মার স্বামী মইনুল মোবাইল ফোনে বলেন সায়মার সাথে আমার ঝগড়া হয়েছে এবং সে ফোন বন্ধ করে রেখেছে বিষয়টি খোঁজ নেন। তখন আমি সায়মার ফোন বন্ধ পেয়ে অফিস ঘর মালিক রেজোয়ানের নিকট ফোন দিলে সে খোঁজ নিয়ে জানায় সায়মা তার কক্ষে থাকা ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনা প্রসঙ্গে ওসি মোঃ হাবিল হোসেন বলেন, মৃতের মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় সায়মার মামা আকতার হোসেন বাদি হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছেন।