ডুমুরিয়ার সাহস গ্রামে ক্রয়কৃত জমি বেদখলে : বাঁধা ও হুমকি প্রতিপক্ষের

0
405

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি:
ডুমুরিয়ায় কবলা মূলে ক্রয়কৃত জমিতে দখল নিতে গেলে প্রতিপক্ষের বাঁধা ও জীবন নাশের ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। ভুক্তভোগী জমির মালিকের ভাই আমজাদ হোসেন গত শুক্রবার এ অভিযোগটি করেছে। যে কোন মুহুর্তে সহিংসতা ঘটার আশংকা করছে জমির মালিক পক্ষ।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার সাহস গ্রামের মৃত নওয়াব আলী শেখের কন্যা রিজিয়া বেগম(৫০) পিতার ওয়ারেশ সুত্রে প্রাপ্ত জমি গত ২২ আগস্ট’১৬ তারিখে ৪২৬৫ ও ৪২৬৬ নম্বর কবলা দলিল মূলে ১.১২৫০ একর জমি খরিদ করেন প্রতিবেশি আবুল কালাম আজাদ। ক্রয়কৃত ওই জমির আংশিক দখলে যায় আবুল কালাম।
কিন্তু বাকি জমিতে দখলে যাওয়ার চেষ্টা করলে রিজিয়াসহ তার ভাই নজরুল ইসলাম শেখ বাঁধা দেয় এবং জমির মালিকদেরকে অকথ্যভাষায় গালিগালাজ করে। এমনকি সম্পত্তিতে দখলে যাওয়ার চেষ্টা করলে নানাবিধ ক্ষতি সাধনসহ জীবন নাশের হুমকী প্রদান করে তারা। এ নিয়ে এলাকায় কয়েক দফা সালিশী বৈঠক করেও কোন সুরাহ হয়নি। উপায়ন্ত না পেয়ে আমজাদ হোসেন বাদী হয়ে ডুমুরিয়া থানায় প্রতিপক্ষ নজরুল ইসলাম ও বোন রিজিয়া বেগমের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।
এ দিকে রিজিয়া বেগম অভিযোগ করে বলেন প্রতিপক্ষ আবুল কালাম আজাদ একই দিনে অমার পৈত্রিক জমির মধ্যে ৪১ ও ৭১ শতক জমি দুইটি দলিল করে শুধুমাত্র ৪১ শতকের জমির মুল্য সাড়ে ৬ লাখ টাকা পেয়েছি এবং ওইদিনই সমুদয় টাকা আনসার ভিডিপি ব্যাংকে ডিপিএস খুলে রেখেছি। বাকী ৭১ শতক জমির মুল্য সাড়ে ১১ লাখ টাকা আমি পায়নি। যে কারনে আমি আদালতের আশ্রয় নিয়েছি। বর্তমানে মামলাটি খুলনা সহকারী জজ ২য় আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।