ট্রিলিয়ন ডলারে আবারও অ্যাপল

0
314

খুলনাটাইমস আইটি: দেশের ১২ জেলায় আইটি বা হাই টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় জাপানে প্রশিক্ষণ নিতে ৫০ জনের একটি দল পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ হাই টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের হাই টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে এ উপলক্ষে এক শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। অনাড়ম্বর এ অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণার্থীদের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, “ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির কোনো বিকল্প নাই। বাংলাদেশকে একটি মেধানির্ভর অর্থনীতির দেশে পরিণত করতে আমরা ইতোমধ্যে বিভিন্ন উচ্চতর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।” আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারের প্রতিশ্রæতি অনুযায়ী বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মসূচির মাধ্যমে দেশের তৃণমূল পর্যায়ে আইসিটি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম ছড়িয়ে দেওয়া হবেও বলে জানান পলক। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, “জেলা পর্যায়ে আইটি, হাই টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় ৩০ হাজার তরুণ-তরুণীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।হাই টেক পার্কের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রথম পর্যায়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মাধ্যমে ৩৪১১ জন গ্রাজুয়েটের মধ্য থেকে ২০০ জনকে নির্বাচন করা হয়েছে। মেধাক্রম অনুসারে প্রথম ৫০ জন এবার প্রশিক্ষণ নিতে জাপান যাচ্ছেন। মতবিনিময় অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হাই টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম বলেন, “হাই টেক পার্ক ইতোমধ্যে ১১ হাজারের অধিক জনের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে। “বর্তমানে আরও প্রায় ৩১০০ জনের প্রশিক্ষণ চলমান রয়েছে এবং আরও ৪৫ হাজার জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিভিন্ন আইটি কোম্পানিতে প্রায় ৪ হাজার ৪৭৬ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়। হাই টেক পার্ক প্রকল্পের আওতায় দেশের ১২টি জেলায় প্রতি তলা ১৫ হাজার বর্গফুটের ৭ তলা স্টিল অবকাঠামোর মাল্টিটেনেন্ট ভবন, প্রতি তলা ৭ হাজার বর্গফুটের ৩ তলা স্টিল অবকাঠামোর ক্যান্টিন ও এমপি থিয়েটর ভবন, ৮টি জেলায় প্রতি তলা ৬ হাজার বর্গফুটের ৩ তলা আরসিসি অবকাঠামোর ডরমিটরি ভবন নির্মাণ এবং ১২টি জেলায় ইলেকট্রো-মেকানিকাল কাজ করা হবে। এছাড়া এই প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষায়িত ল্যাবও স্থাপন করা হবে। জাপানের ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউটে ডেটা সায়েন্স, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, মেশিন লার্নিং, ইন্টারনেট অব থিংস, রবোটিক্স, বøক চেইন ও সাইবার সিকিউরিটি বিষয়ে ৯০ দিনের এই প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলবে। এ বছর জাপানে অনুষ্ঠিত ‘আইটি উইকে’ অংশ নিয়েছিল বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি আইটি প্রতিষ্ঠান। সেখানে হাই টেক পার্কের একটি প্রতিনিধি দল ফুজিৎসুর রিসার্চ ইনস্টিটিউটের সঙ্গে মতবিনিময় করে। ওই আলোচনার ধারাবাহিকতায় তথ্য প্রযুক্তি খাতে দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তোলার পাশাপাশি বাংলাদেশের আইসিটি সেবা ও পণ্য বিশ্ব বাজারে স¤প্রসারণে বিনিয়োগের লক্ষ্যে এ বছর জুনে বাংলাদেশ হাই টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চুক্তি সই করে জাপানের ফুজিৎসু রিসার্চ ইনস্টিটিউট।