টেকসই উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন চাই : সিটি মেয়র

0
394

বিজ্ঞপ্তি : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেছেন, বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ। দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ডে দেশ অগ্রসর হচ্ছে এটা যেমন সত্য তেমনি আরেকটি সত্য দুর্নীতি সকল কল্যাণমূলক কাজের অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন, টেকসই উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে হলে দুর্নীতিমুক্ত একটি প্রশাসন গড়ে তোলা দরকার। স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতামূলক জনমুখী একটি প্রশাসন দেশকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছে দিতে পারবে বলে সিটি মেয়র উল্লেখ করেন।
সিটি মেয়র রবিবার সকালে নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে দুর্নীতি প্রতিরোধে দুর্নীতি দমন কমিশন ও খুলনা জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাথে কেসিসি কর্তৃপক্ষের এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তৃতা করছিলেন। দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ (২৬ মার্চ থেকে ১ এপ্রিল) উপলক্ষে খুলনা সিটি কর্পোরেশন ‘‘বন্ধ হলে দুর্নীতি উন্নয়নে আসবে গতি’’ শীর্ষক এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।
নাগরিক সেবার মানোন্নয়নে দাপ্তরিক কাজে গতিশীলতা আনয়ন এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নগর ভবনের নিচতলায় ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালু করার পাশাপাশি নানামুখী কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশনের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ট্রান্সপারেন্সী ইন্টারন্যাশনাল ও খুলনা জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি সমন্বিতভাবে কাজ করলে দুর্নীতি প্রতিরোধে সফলতা আসবে বলে সিটি মেয়র আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন-খুলনা বিভাগের পরিচালক ড. মোঃ আবুল হাসান, উপ-পরিচালক (সজেকা) মোহা: আবুল হোসেন, কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) পলাশ কান্তি বালা, সচিব মোঃ ইকবাল হোসেন, খুলনা জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সহ-সভাপতি বেগম ফেরদৌসী আলী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবু জাফর, সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আজাদুল হক, কেসিসি’র প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ নাজমুল ইসলাম, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল আজিজ, বাজেট কাম একাউন্টস অফিসার কাজী জাকিরুল হাসান, নির্বাহী প্রকৌশলী লিয়াকত আলী খান, জাহিদ হোসেন শেখ, মশিউজ্জামান খান, চীফ প্লানিং অফিসার আবির উল জব্বার, আর্কিটেক্ট রেজবিনা খানম, সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরীফ শাম্মিউল ইসলাম, জনসংযোগ কর্মকর্তা সরদার আবু তাহের, রাজস্ব কর্মকর্তা অহিদুজ্জামান খান, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা এসকেএম তাছাদুজ্জামান, এস্টেট অফিসার নুরুজ্জামান তালুকদার, কালেক্টর অব ট্যাক্সেস তপন কুমার নন্দী, ডিসিটি মোঃ মশিউর রহমান খান টিটো, কর নির্ধারক এম এ মাজেদ প্রমুখ বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন। স্বাগত বক্তৃতা করেন দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ আশরাফ উজ্জামান এবং সঞ্চালনা করেন কমিটির সদস্য মোঃ মনিরুজ্জামান রহিম। কেসিসি’র কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্যগণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।