টি-টুয়েন্টিতে শনিবার নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি বাংলাদেশ

0
159

টাইমস ডেক্স : ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্য নিয়েশনিবার হ্যামিল্টনের সেডন পার্কে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি। বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি), গাজী টেলিভিশন ও টি-স্পোর্টস সরাসরি ম্যাচটি সম্প্রচার করবে।
তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর, টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদি বাংলাদেশ। কারন টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটে বড় দল-ছোট দলের মধ্যে খুব বেশি পার্থক্য থাকে না।
সিরিজ শুরুর আগে টি-টুয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘ওয়ানডে ফরম্যাটে আমরা যেভাবে খেলেছি, তাতে হতাশ।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী ওয়ানডে সিরিজে পারফরমেন্স করতে পারিনি। টি-টুয়েন্টি এমন এক ফরম্যাট যেখানে বড়-ছোট দলের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। কোন নির্দিষ্ট দিনে টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে পারফর্ম করা গুরুত্বপূর্ন, র‌্যাংকিং যাই হোক না কেন। যদি এক বা দু’জন খেলোায়াড় পারফর্ম করে এবং আমরা যদি দল হিসেবে খেলতে পারি, বোলিং-ফিল্ডিংএ ভালো করা যায়, তবে এই ফরম্যাটে আমরা যেকোন দলকে হারাতে পারবো। এটাই আমরা বিশ্বাস করি।’
যদিও নিউজিল্যান্ডকে হারানোর ব্যাপারে আশাবাদি মাহমুদুল্লাহ। কিন্তু টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটের পারফরমেন্স তাদের পক্ষে কথা বলছে না।
এখন পর্যন্ত টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে ৯৬টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। জয় ৩২টি, হার ৬২টি এবং ২টি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৭ ম্যাচ খেলে এখনো জয়হীন বাংলাদেশ।
নিউজিল্যান্ডের মাটিতে এখনো কোন ফরম্যাটেই জয় পায়নি বাংলাদেশ। এই সফরে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশের ফলে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশের হার এখন ২৯টি ম্যাচে (১৬টি ওয়ানডে, ৯টি টেস্ট ও ৪টি টি-টুয়েন্টি)।
মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘আমরা জানি, নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন আমাদের জন্য সবসময়ই চ্যালেঞ্জিং। ওয়ানডে সিরিজে আমরা তা দেখেছি। তারা তাদের কন্ডিশনকে ভালোভাবে কাজে লাগিয়েছে, আমরা করতে পারিনি।’
মাহমুদুল্লাহর মতে, ওয়ানডে সিরিজে ব্যাটিংই তাদের হতাশ করেছে। তিনি বলেন, ‘ব্যাটিং ইউনিট হিসেবে আমরা ভালো করতে পারিনি। আমাদের বোলাররা ভালো করেছে। আমরা কিছু ভুল করেছি, তাই ম্যাচের ফল আমাদের পক্ষে আনা সম্ভব হয়নি।’
তিনি জানান, ওয়ানডে সিরিজের দুঃস্মৃতি ভুলে ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে পারলে টি-টুয়েন্টি সিরিজ জিততে পারেন।
মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘যদি আমরা ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে পারি, তবে ম্যাচের ফলাফল আমাদের পক্ষে আনা সম্ভব। আমি বিশ্বাস করি, আমাদের এখানে জয়ের ক্ষুধা রয়েছে। আমরা জয়ের জন্য মুখিয়ে আছি। আশা করি, আমরা কাল ক্রিকেটটাই খেলতে পারবো।’
অন্য দিকে বেশ কিছু নিয়মিত খেলোয়াড় ছাড়াই টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলতে নামবে নিউজিল্যান্ড। নিয়মিত অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন, ট্রেন্ট বোল্ট, কাইল জেমিসন, জিমি নিশাম, মিচেল স্যান্টনার এবং টিম সেইফার্ট টি-টুয়েন্টি সিরিজের দলে নেই। আইপিএল কারনে তাদেরকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। তারপরও তাদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড় রয়েছে। উইলিয়ামসনের পরিবর্তে দলকে নেতৃত্ব দিবেন টিম সাউদি। দলে আছেন মার্টিন গাপটিল ও ইশ সোধি।
বেশ কিছু নতুন মুখ নিয়ে মাঠে নামলেও, তারপরও তারা কঠিন প্রতিপক্ষ। কারন তাদের ফিল্ডিং-ব্যাটিং বেশ শক্তিশালী। পুরো ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের ফিল্ডিং ছিলো যাচ্ছেতাই। পাঁচটি ক্যাচ ফেলেছে তারা। এতে নিউজিল্যান্ডের জন্য সিরিজ জয় সহজ আরো সহজ হয়েছে।
ফিল্ডিংএর নিজেদের ভুলকে স্বীকার করে, টি-টুয়েন্টিতে ভালো করতে প্রত্যয়ী মাহমুদুল্লাহ।