টিজারেই বাজিমাত করলেন ‘মিতিন মাসি’

0
405

খুলনাটাইমস বিনোদন: নির্মাণের আগেই ছিল আলোচনায়। নির্মাণ শেষ হওয়ার পর এবার মুক্তির আগে আরেক ধাপ আলোচনার মাত্রা যোগ করল ‘মিতিন মাসি’। রোববার প্রকাশিত হয় চলচ্চিত্রটির টিজার। আর টিজার প্রকাশের পরপরই হইচই শুরু হয়ে গেছে ইন্টারনেটে। প্রথম ঝলকেই ‘মিতিন মাসি’র ভ‚মিকায় অভিনয় করে নজর কাড়লেন টলিউড অভিনেত্রী কোয়েল মলিস্নক। এতে কোয়েল মলিস্নককে দেখা গেছে, প্রখর বুদ্ধিদীপ্ত, বেপরোয়া, তীক্ষ্ন দৃষ্টিসম্পন্ন ঘরোয়া মহিলা, যিনি অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে মোটেই পিছপা হন না। পুরুষদের মতোই সমানভাবে গল্পের খলনায়কদের আছাড় মারতেও ছাড়েন না তিনি। টিজারের অ্যাকশন সিকোয়েন্সেও দেখা গেল তুখোর কোয়েলকে। সুচিত্রা ভট্টাচার্যের মহিলা গোয়েন্দা উপন্যাসের চরিত্র প্রজ্ঞা পারমিতা মুখোপাধ্যায়ের খোলসের বাইরে গিয়েও অরিন্দমের মিতিন মাসিকে অনন্য রূপে তুলে ধরেছেন কোয়েল মলিস্নক। যিনি আজকের সম্পূর্ণা, স্বয়ংসিদ্ধা। যার ইঙ্গিত মিলল টিজারেই। বাংলা সাহিত্যে যেমন গোয়েন্দা চরিত্রের তালিকা লম্বা, ঠিক তেমনই পালস্না দিয়ে রুপালি পর্দাতেও বাড়ছে তাদের আনাগোনা। সাহিত্যপ্রেমিরা হলমুখো হয়েছেন বইয়ের পাতা থেকে পর্দায় গোয়েন্দা চরিত্রগুলোর জীবন্ত রূপ দেখতে। সেই তালিকায় নাম লিখিয়েছেন সুচিত্রা ভট্টাচার্যের মিতিন মাসিও। পুরুষ গোয়েন্দাদের ভিড়ে মহিলা বলে পিছিয়েই বা থাকবেন কেন! টিজারে ঠিক এমন প্রশ্নই তুলেছেন কোয়েল ওরফে ‘মিতিন মাসি’। চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে আগামি ২ অক্টোবর। কিন্তু এই একমাস সময় নাকি অনেক লম্বা মনে হচ্ছে কোয়েল মলিস্নকের কাছে। তিনি বলেন, ‘চলচ্চিত্রটি মুক্তির জন্য আমি মুখিয়ে আছি। এটি আমার অভিনয় জীবনের মাইলফলক হয়ে থাকবে। এই চলচ্চিত্রের জন্য দীর্ঘদিন হাতে কোনো নতুন কাজ রাখিনি। আমার চিন্তা, চেতনা, ধ্যান-ধারণা- সবকিছুতেই কেবল ‘মিতিন মাসি। কোয়েল মলিস্নক জানান, ‘মিতিন মাসির’ মেয়েরা অবলা, ভয় পায়। মেয়েরা অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে পারে না। প্রতিবাদ করার সাহস না থাকায় মেয়েরা পিছিয়ে পড়ে। এই কথাগুলো খুব একটা অপরিচিত নয় কিন্তু আমাদের কাছে। চেনা আবহটাই নতুন করে তুলে ধরা হয়েছে এই চলচ্চিত্রে।