জিম্বাবুয়ে প্রেসিডেন্টের সমাবেশে বোমা হামলা

0
344

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট এমারসন এমনানগাগ্যা রোববার জিম্বাবুয়ের বুলাওয়াইয়ো শহরে সমাবেশ করতে গিয়ে বোমা হামলার শিকার হয়েছেন। খবর বিবিসির।

প্রেসিডেন্ট এক টুইট বার্তায় বলেন, একটি বিস্ফোরক আমার মাত্র কয়েক ইঞ্চি দূরে বিস্ফোরিত হয়, কিন্তু এবার আমার মরার সময় নয়।

জিম্বাবুয়ের স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডেভিড পারিরেনিয়াত্যা জানান, বোমা হামলার ঘটনায় ১৫ জন আহত হয়েছেন। এরমধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বোমা হামলার আহত মানুষের সঠিক সংখ্যা জানা যায়নি। তবে, প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

জানা যায়, জিম্বাবুয়ে প্রেসিডেন্ট এমারসন বিরোধীদলের ঘাটি বলে পরিচিত জিম্বাবুয়ের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর বুলাওয়াইয়োতে তার ঝানু-পিএফ পার্টির প্রচারণার জন্য গিয়েছেন। আসছে ৩০ জুলাই জিম্বাবুয়ের জাতীয় নির্বাচন। নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে সেখানে গিয়েছিলেন তিনি।

প্রেসিডেন্টের একজন মুখপাত্র জানান, প্রেসিডেন্ট আঘাত পাননি, তবে ভাইস প্রেসিডেন্ট কেম্বো মোহাদি পায়ে আঘাত পেয়েছেন। কনস্টান্টিনো চিওয়েংগা নামের আরেকজন ভাইস প্রেসিডেন্ট মুখমণ্ডলে হালকা আঘাত পেয়েছেন।

এ ঘটনায় আরও আহত হয়েছেন দলের সভানেত্রী ওপ্পাহ মুচিংগুরি-কাশিরিসহ রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ঝেডবিসির ক্রু মেম্বার ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

প্রেসিডেন্ট এমারসন এরইমধ্যে আহতদের দেখার জন্য হাসপাতালে গিয়েছেন। তিনি এই বোমা হামলাকে নির্বোধের কাণ্ড বলে অভিহিত করে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানায়, বোমা হামলার পরপরই মানুষ বিচ্ছিন্নভাবে ছোটাছুটি ও হইচই করতে থাকে এবং প্রেসিডেন্টকে কড়া নিরাপত্তায় নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়।

এ ঘটনায় বিরোধী দলের নেতা নেলসন চামিসা শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, যেকোনো ধরনের রাজনৈতিক হামলা পুরোপুরি নিন্দাযোগ্য।