ছাত্রলীগে সন্ত্রাসের কোন অবকাশ নেই : তালুকদার খালেক এমপি

0
676

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি :
মোংলা-রামপালের (বাগেরহাট-০৩) সংসদ সদস্য আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিয়মিত ও ভদ্র ছাত্র-ছাত্রীদেরকেই ছাত্র রাজনীতে আসতে হবে। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যদি ছাত্রলীগ না থাকতো, ছাত্রলীগের আদর্শবান নেতা-কর্মী না থাকতো তাহলে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক দিতে পারতো না। ১৯৬৯ ও ৭০ সালে দেশের সমস্ত কলেজে ছাত্রলীগের কর্মীদের ছাত্র সংসদ ছিল যার কারণেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। সুতরাং ছাত্রলীগ মানেই শিক্ষা-শান্তি-প্রগতি, এখানে সন্ত্রাসের কোন অবকাশ নেই। আমরা চাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে এই সংগঠন প্রতিষ্ঠিত হোক। আমার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চায় মাদকমুক্ত বাংলাদেশ। আমাদের সরকারের আমলে কোন মাদক চলবে না। আমি মাদকমুক্ত মোংলা চাই। যা খেলে মানুষ অমানুষ হয়ে যায়, একটি পরিবার ধ্বংস হয়ে যায় সেই মাদকের কোন কার্যক্রম মোংলায় চলতে দেয়া হবে না। মাদকের সাথে সম্পৃক্ত এমন কেউই আওয়ামী লীগ, যুব লীগ ও ছাত্রলীগে জায়গা হবে না। ছাত্র লীগের নেতৃত্বে এসে যারা ঘের চাইবে না, মদ খাবে না, মানুষের উপর অত্যাচার করবে না, চাদাবাজী করবে না সে সকল ছাত্র-ছাত্রীদেরকেই সংগঠনের দায়িত্ব দেয়া হবে।
রবিবার সকালে মোংলা বন্দর শ্রমিক সংঘ চত্বরে ছাত্র লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ সব কথা বলেন।
এ সময় তিনি আরো বলেন, মোংলার আজকের যে উন্নয়ন তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া কেউই করতে পারে নাই। বিএনপি-জামায়াতের আমলে যে মোংলা বন্দরকে মৃত বন্দর হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল। সেই মৃত বন্দরকে শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ সরকার কর্মচাঞ্চল্য করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যবসায়ীদের ডেকে মোংলা বন্দর ব্যবহারের জন্য সুযোগ করে দিয়েছেন। তৎকালীন জোট সরকারের আমলে কাজের অভাবে মোংলা ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়া শ্রমিকদের আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই ডেকে এনে ১৯ কোটি টাকার গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে বিদায়/অবসর দেয়া হয়েছে। মোংলা ও রামপালের ব্যাপক উন্নয়নের কথা মাথায় রেখেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আবারো ৪র্থ বারের মত শেখ হাসিনাকে প্রধানন্ত্রী করে চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সকলকে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করার আহবাণ জানান তিনি।
মোংলা উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি শিকদার ইয়াছিন আরাফাতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তৃতা করেন খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সোনিয়া আক্তার, মোংলা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সজিব খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিলন বাওয়ালী, মুশফিকুর রহমান সাগর, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন রানা, সাধারণ সম্পাদক শেখ শাহারুখ বাপ্পী, সহ-সভাপতি পারভেজ খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: রুবেল, মোংলা সরকারী কলেজ শাখার সভাপতি রাজুল ইসলাম সানি ও সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রাসেল প্রমুখ। এছাড়া ছাত্র সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাবেক সাংসদ হাবিবুন নাহার, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব শেখ আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক শেখ আ: রহমান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ই¯্রাফিল হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, পৌর যুব লীগের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান জসিমসহ অন্যান্য নেতৃব্ন্দৃরা। #