চেলসি ছেড়ে জুভেন্টাসে সারি

0
634

খুলনা টাইমস স্পোর্টস:
চেলসি ছেড়ে রোববার জুভেন্টাসের নতুন কোচ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন মরিজিও সারি। উভয় ক্লাবের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। লন্ডনে এক মৌসুম কাটানো সারির সময়টা ভাল না যাওয়ায় ব্লুজদের ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন বলে সূত্রমতে জানা গেছে।নাপোলি ছেড়ে গত মৌসুমে স্ট্যামফোর্ড ব্রীজে যোগ দিয়েছিলেন সারি। কিন্তু আবারো তাকে ইতালিতেই ফিরতে হলো। তিন বছরের চুক্তিতে জুভেন্টাসের সাথে তার চুক্তি হয়েছে। প্রিমিয়ার লিগে সারির অধীনে চেলসি তৃতীয় স্থানে থেকে মৌসুম শেষ করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা ফিরে পেয়েছে।এক বিবৃতিতে জুভেন্টাসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘মরিজিও সারি ইতালিতে ফিরেছেন। এখানেই তিনি ক্যারিয়ারের বেশীরভাগ সময় কোচিংয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। আজ থেকে ২০২২ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত তিনি জুভেন্টাসের সাথে থাকবেন।’
গত মাসে ইউরোপা লিগের জয় সারির কোচিং ক্যারিয়ারে প্রথম বড় শিরোপা। তবে তুরিনে তার কাছ থেকে আরো বেশী কিছু আশা করা হচ্ছে। গত আট বছর ধরে সিরি-এ লিগের শিরোপা ধরে রেখেছে জুভেন্টাস। নাপোলিতে তিনি তিন বছর কাটিয়েছেন। আর এই তিন বছরে তিনি নাপোলিকে মৌসুম শেষে রেকর্ড পয়েন্ট উপহার দিয়েছেন।এদিকে গত বছর ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোকে দলে ভিড়িয়েও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ব্যর্থতায় জুভেন্টাস ছেড়ে চলে যেতে হলো মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রিকে। ৩৪ বছর বয়সী রোনাল্ডোকে সাথে ১৯৯৬ সালের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয়ই এখন সারির মূল লক্ষ্য। নাপোলিতে যে ধরনের ফুটবলীয় ব্র্যান্ড তৈরী করেছিলেন সারি সেটাই জুভেন্টাসে কাজে লাগানোর আশা করছে ইটালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

গত বছর চেলসির খেলোয়াড়দের সাথে সুসম্পর্ক তৈরীতে ব্যর্থ সারি জুভেন্টাসের ড্রেসিং রুমকে কিভাবে সামলাবেন সেটাই এখন প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে। স্ট্যামফোর্ড ব্রীজে দলের মানসিক শক্তি নিয়ে নিয়মিতই সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে সারিকে। ফেব্রুয়ারিতে লিগ কাপ ফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে একেবারে শেষ মুহূর্তে টাই ব্রেকারের সময় গোলরক্ষক কেপা আরিজাবালেগা বদলী বেঞ্চে যেতে অস্বীকৃতি জানালে ৬০ বছর বয়সী সারি তখনই চেলসি ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। যদিও শেষ পর্যন্ত পুরো মৌসুম টিকে থেকে চেলসিকে লিগে তৃতীয় স্থান উপহার দিয়েছেন। ইউরোপা লিগে আর্সেনালকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে শিরোপা জয় দিয়েই সারিকে বিদায় জানিয়েছেন ব্লুজরা। ঐ সময়ই জুভেন্টাসের পক্ষ থেকে প্রস্তাবটা আর ফিরিয়ে দেননি সারি। আলেগ্রির যোগ্য উত্তরসূরী হিসেবে সারির থেকে যোগ্য প্রার্থী এই মুহূর্তে জুভেন্টাসের সামনে আর কেউ ছিলনা।