গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে আহত কালামের অবস্থা আশংকাজনক, ১ জনকে ঢাকায় প্রেরন

0
350

নিজস্ব প্রতিবেদক:
নগরীর নিরালা প্রত্যাশা আবাসিক এলাকায় বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে আহত কালাম মুন্সী (১৮) ও নুরুল ইসলামের অবস্থা আশংকাজনক। তাদেরকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে আহত নুরুল ইসলামকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় বার্ণ ইউনিটে প্রেরন করা হয়েছে। অপর আহত কালামের অবস্থা এখনো আশংকামুক্ত নয়। সে ডান চোখে কিছু দেখতে পাচ্ছে না।
এর আগে গত রোববার বিকেলে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে নগরীর নিরালা এলাকায় একটি মাঠে বেলুন বিক্রির জন্য গ্যাস সিলিন্ডার গ্যাস ভর্তির জন্য ব্যস্থ ছিলেন। এ সময় গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরনে গ্যাস বেলুন বিক্রেতা বাহাদুর দুই হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এসময় সে ঘটনাস্থলে মারা যায়। এ সময় দুই কর্মচারি কালাম মুন্সী ও নুরুল ইসলাম গুরুত্বর আহত হন।
খুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কালাম মুন্সীর বড় বোন পারভিন আক্তার মঙ্গলবার সকালে এ প্রতিবেদককে বলেন, নগরীর পশ্চিম টুটপাড়া এলাকার বাসিন্দা তারা। তার বাবা সিরাজ মুন্সী পেশায় একজন দিন মজুরি। তার ভাই কালাম মুন্সী গত ৩ মাস ধরে বাহাদুরের সাথে গ্যাস বেলুন তৈরির কাজে যোগ দেন। তিনি বলেন, গ্যাস সিলিন্ডারে মালিক বাহাদুর নিজেই কেমিক্যাল ও পাউডার মিশিয়ে গ্যাস তৈরি করতেন। ওই দিন গ্যাস সিলিন্ডারে তৈরির জন্য প্রস্তুতি চলছিল। এ সময় বিস্ফোরনে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার অবস্থা এখনো আশংকামুক্ত নয়। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরনের নির্দেশ দেন। গরীব মানুষ অভাবের সংসার তাই চিকিৎসকদের অনুরোধ করে তাই ভাইকে এই হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হচ্ছে। তিনি বলেন, প্রতিদিন ২শ’ টাকা মজুরি হিসেবে তার ভাই কালাম গত ৩ মাস ধরে বাহাদুরের কাছে কাজে যোগ দেন।