গত দুইদিনে ডুমুরিয়া ও খানজাহান আলী থানায় ৮৯০রাউন্ড গুলি ও ১টি গ্রেনেট উদ্ধার

0
902

ফুলবাড়ীগেট(খুলনা) প্রতিনিধি :
কুয়েট ক্যাম্পাসের পশ্চিম পাশে নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের রাস্তা নির্মান কাজের মাটির নিচ থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ্আরো ৮১ রাউন্ড রাইফেলের গুলি উদ্ধার করেছে খানজহানা আলী থানা পুলিশ। এই নিয়ে গত দুইদিনে ডুমুরিয়া এবং খানজাহান আলী থানা পুলিশ মোট ৮৯০ রাউন্ড গুলি ও ১টি গ্রেনেট উদ্ধার করা হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার সকালে উৎসুক জনতা গুলি পাওয়া স্থানে গিয়ে আরো ৩০ রাউন্ড গুলি দেখে বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে খবর দেয়। বিষয়টি কর্তৃপক্ষ থানা পুলিশকে অবহিত করলে খানজাহান আলী থানার এস আই মোঃ আনিছুর রহমান সকাল সাড়ে ১১ টায় সঙ্গিয় ফোর্স নিয়ে কুয়েট ক্যাম্পাসের পশ্চিম পাশে নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের রাস্তা নির্মান কাজে স্কেবেটার মেশিন দিয়ে তোলা ঐ স্থানের মাটির খুড়ে পরিত্যাক্ত অবস্থায় আরো ৮১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেন। এর আগে গত সোমবার ডুমুরিয়ার থুকড়া গ্রামের দিনমুজুর শ্রমিক সোহেল রানা ৮০৩ রাউন্ড গুলি ডুমুরিয়া বাজারে ভাঙ্গাড়ী দোকানে ওজনে বিক্রি করার সময় ডুমুরিয়া থানা পুলিশের হাতে আটক হয়। আটকের পর সোহেল পুলিশকে জানান সম্প্রতি আইটি ট্রেনিং সেন্টারের রাস্তার মাটির কাজ করার সময় গুলি গুলো পেয়ে সে কাউকে কিছু না বলে টাকার লোভে সে গুলো কেজি দলে বিক্রি করতে এসেছিলো।

পরবর্তিতে তার দেওয়া তথ্য মতো ঐদিনই দুপুর সাড়ে ৩ টায় খানজাহান আলী থানা পুলিশ সহ উর্ধতন পুলিশ কর্মকর্তা কুয়েট ক্যাম্পাসের পশ্চিম পাশে নবনির্মিত আইটি ট্রেনিং সেন্টারের উল্লেখিত স্থানে তল্লাশী চালিয়ে মাটির নিচে পরিত্যাক্ত অবস্থায় সাড়ে ৭শ গ্রাম ওজনের ্১টি গ্রেনেট ও ৬ রাউন্ড রাইফেলের গুলি উদ্ধার করে এবং গতকাল মঙ্গলবার সকালে দ্বিতীয় দফায় একই স্থান থেকে আরো ৮১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় বাসিন্দা আশির্ধো আঃ গফুর বলেন, ১৯৭১ সালের যুদ্ধের সময় এখানে খানেদের ক্যাম্প এবং ইটের স্তুপ ছিলো। সেই সময়ে তাদের ফেলে যাওয়া গুলি হয়তো মেশিন দিয়ে মাটিকেটে রাস্তা করার সময় উপরে উঠে এসেছে। উল্লেখ্য সম্প্রতি আইটি ট্রেনিং সেন্টারের রাস্তা নির্মাণ কাজের জন্য তোলা মাটি ড্রেসিংয়ের কাজ করার সময় । এ ব্যাপারে খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ লিয়াকত আলী বলেন, ডুমুরিয়া বাজারের ভাঙ্গাড়ীর দোকানে কেজি দরে বিক্রি করার সময় সোহেল রানাকে পুলিশ আটক করে। পরে ডুমুরিয়া থানা পুলিশের দেওয়া তথ্য মতো উল্লেখিত স্থানে গত দুই দিনে দুই দফায় কোদাল দিয়ে মাটিকেটে অভিযান চালিয়ে ৮৭ রাউন্ড গুলি ও ১টি গ্রেনেট উদ্ধার করা হয়েছে।