গণহত্যায় জড়িত ও মদদদাতাদের বিচার দেশের মাটিতে চলতেই থাকবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

0
379

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ৭৫ এর পর গণহত্যাকারীদের মদদদাতারা ক্ষমতায় থাকার কারণেই অতীতে গণহত্যা দিবস পালনে কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি। রোববার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গণহত্যা দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন তিনি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, একাত্তরের ২৫শে মার্চ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী যে গণহত্যা চালিয়েছিল পৃথিবীর ইতিহাসে এতো বড় গণহত্যা আর হতে পারে না।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘২৫ মার্চ যে গণহত্যা শুরু তা বিশ্বব্যাপী সবাই স্বীকার করেছে। কিন্তু ৭৫ পরবর্তী সরকার যেহেতু এই ব্যপারে কোন নজরই দেয়নি। তারা ভেবেছে এটা যেন সবাই ভুলেই গেছে। কিছুদিন আগে সংসদে প্রস্তাব এসেছে ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। গণহত্যায় যারা সামিল ছিল জিয়াউর রহমান তাদেরকে মন্ত্রী উপদেষ্টা প্রধানমন্ত্রীর পদ দিয়ে তাদেরকে পুরস্কৃত করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘গণহত্যায় যারা সরাসরি যুক্ত, যারা মদদদাতা উভয়ই সমান দোষে দোষী। তাদের অপকর্মের কথা যেনো জাতি ভুলে না যায়। আর প্রজন্মের পর প্রজন্ম যেন এই কথাটা মনে রাখে যে এই দেশে গণহত্যা ঘটিয়েছিল। কারা কেন এবং কাদের বিচার এই মাটিতে চলতেই থাকে। তাদের কোন ক্ষমা নেই। তাদের বিচার হবেই এবং মদদদাতারাও ঘৃণার পাত্র। এই কথা সবাইকে মনে রাখতে হবে।’
সময়