গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনা’র উন্নয়নে এ অঞ্চলের মানুষ বিশ্বাস স্থাপন করেছে

0
279

আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, গণতন্ত্রের মানস কন্যা দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনা’র উন্নয়নে এ অঞ্চলের মানুষ বিশ্বাস স্থাপন করেছে। তিনি ওয়াদা করলে সেটি পূরণ করে থাকেন। সেকারনেই সার্কিট হাউসের জনসভা মহাজনসমুদ্রে পরিণত হয়েছিলো। নেতৃবৃন্দ মহানগরীর সকল ওয়ার্ড, থানা এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, আপনাদের সহযোগিতায় যেমন দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে শেখ হাসিনা উন্নয়ন করতে সমর্থ হয়েছেন। তেমনি আপনাদেরই ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এবং এদেশের মানুষে সার্বিক সহযোগিতায় ২০১৪ সালে বিএনপি-জামায়াতের জ্বালাও পোড়াওয়ের বিরুদ্ধে গিয়ে নির্বাচনে গণতন্ত্রের মানস কন্যা দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনা’র পক্ষে রায় দিয়ে সরকার গঠন করা সম্ভব হয়েছিলো। আপনাদের শক্ত কঠিন দৃঢ় মনেবলের কারনেই সেদিন যেমন শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে সরকার গঠন করা সম্ভব হয়েছিলো ; তেমনি গত ৩ মার্চেও জনসভা মহাজনসমুদ্রে পরিণত হয়েছিলো সেটিও আপনাদেও প্রচেষ্টায়। তাই বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক জোন, আত্ম মর্যাদাশীল জাতির গঠন কওে দেশ ও জাতিকে উন্নত বিশ্বেও কাতাওে দাড় করাতে শেখ হাসিনা’র পাশে অতন্ত্র প্রহরীর মত অবস্থান করার আহবান জানান।

সোমবার সন্ধ্যায় দলীয় কার্যালয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের জরুরী বর্ধিত সভায় নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন। মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি’র সভাপতিত্বে এবং মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ১৪ দলের সমন্বয়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান এমপি’র পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা শেখ হায়দার আলী, কাজী এনায়েত হোসেন, বেগ লিয়াকত আলী, এ্যাড. রজব আলী সরদার, এমডিএ বাবুল রানা, নুরইসলাম বন্দ, আবুল কালাম আজাদ, মো. শহিদুল ইসলাম, শেখ মো. ফারুক আহমেদ, শ্যামল সিংহ রায়, মকবুল হোসেন মিন্টু, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, শেখ ফজলুল হক, ফেরদৌস হোসেন চান ফারাজী, অধ্যা. আলমগীর কবীর, কাউন্সিলর আলী আকবর টিপু, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন খান, কামরুল ইসলাম বাবলু, বিরেন্দ্র নাথ ঘোষ, হাফেজ মো. শামীম, মো. মফিদুল ইসলাম টুটুল, শেখ নুর মোহাম্মদ, শেখ মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক হাওলাদার, এ্যাড. মো. সাইফুল ইসলাম, শেখ আবিদ হোসেন, ফকির মো. সাইফুল ইসলাম, এস এম আনিছুর রহমান, আলী আজগর মিন্টু, মাহাবুবুল আলম বাবলু মোল্লা, কাউন্সিলর শামছুজ্জামান মিয়া স্বপন, রনজিত কুমার ঘোষ, হাজী মো. নুরুজ্জামান, অধ্যা. হোসনে আরা রুনু, লুৎফুন নেছা লুৎফা, এ্যাড. খাদিয়া রাবেয়া ওয়ালী করবী, নয়মী বিশ্বাস সাথী, শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন, এস এম আসাদুজ্জামান রাসেলসহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।
সভায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ, ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্ম বার্ষিকী, ২৫ মার্চ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস এবং ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।