গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ সংবাদপত্রের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ : রাষ্ট্রপতি

0
43

টাইমস ডেস্ক::

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বলেছেন,গণতন্ত্রের বিকাশ এবং এর প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ সংবাদপত্রের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
তিনি বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস উপলক্ষ্যে আজ এক বানীতে এ কধা বলেন। রাষ্ট্রপতি ‘বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের পক্ষ থেকে আগামীকাল রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ‘বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস-২০২১’ পালনের উদ্যোগকে স্বাগত জানান।
এছাড়াও তিনি অনুসন্ধানী ও সৃজনশীল প্রতিবেদনের জন্য বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের পদকপ্রাপ্ত গণমাধ্যমকর্মীদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।
আবদুল হামিদ বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সংবাদপত্রের স্বাধীনতা রক্ষা ও সাংবাদিকতার মান উন্নয়নে ১৯৭৪ সালে ‘বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল আইন’ প্রণয়ন করেন এবং একই বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি তা গেজেট আকারে প্রকাশিত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিবছর ১৪ ফেব্রুয়ারি ‘বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস’ পালন করা হচ্ছে। ১৯৭৪ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে সংবাদপত্রের গুণগতমান নিশ্চিতকরণের পাশাপাশি হলুদ সাংবাদিকতারোধে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
রাষ্ট্রপতি বলেন, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা, তথ্যের অবাধ প্রবেশাধিকার এবং জনগণের ক্ষমতায়ন পারস্পরিক সম্পর্কযুক্ত। গণতন্ত্রের বিকাশসহ এর প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ সংবাদপত্রের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। স্বাধীন ও মুক্ত গণমাধ্যম গণতন্ত্রকে সুসংহত করার পাশাপাশি মানবাধিকার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে।
তিনি বলেন,গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রা, সাম্য, সুশাসন ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজপ্রতিষ্ঠাসহ ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে সরকার নানা উদ্যোগ ও কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এসব কর্মসূচির সুষ্ঠু বাস্তবায়নে গণমাধ্যমের দায়িত্বশীলতা ও সহযোগিতা খুবই জরুরি বলে রাষ্ট্রপতি মনে করেন।
আবদুল হামিদ প্রত্যাশা করেন,বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ ও মতামত-পরিবেশনের মাধ্যমে সাম্য ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় গণমাধ্যমগুলো এগিয়ে আসবে ।
তিনি ‘বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল দিবস ২০২১’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here