খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চায় শিক্ষার্থীরা বিপথগামী হয় না: খুবি উপাচার্য

0
991

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র ও ছাত্রীদের ৫ম আন্তঃডিসিপ্লিন ভলিবল প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয়। এই ভলিবল প্রতিযোগিতায় ছাত্রীদের খেলায় ২০টি ডিসিপ্লিন দল এবং ছাত্রদের খেলায় ২৮টি ডিসিপ্লিন দল অংশগ্রহণ করে।
ছাত্রীদের ফাইনাল খেলায় ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিন দল পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। অপরদিকে ছাত্রদের মধ্যকার ফাইনাল খেলায় পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন দল এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিন দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন খেলার মাঠে ছাত্রী ও ছাত্রদের পৃথক পৃথকভাবে দু’টি ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। বিপুল সংখ্যক দর্শকের উপস্থিতিতে আনন্দ-উল্লাসে দু’টি ডিসিপ্লিনের ফাইনাল খেলা হয়ে ওঠে উপভোগ্য। খেলার মাঠে খেলোয়াড়দের নৈপুণ্য ছিল মান সম্পন্ন।
খেলা শেষে শারীরিক শিক্ষাচর্চা বিভাগের (ভারপ্রাপ্ত) পরিচালক মোল্লা মোহাম্মদ শফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে পুরস্কার বিতরণ করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। এক সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় প্রধান অতিথি উৎসবমূখর পরিবেশে এই টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ায় অংশগ্রহণকারী সকল ডিসিপ্লিনের প্রতিযোগীদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দলের খেলার নৈপুণ্যের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার মেয়েদের বিশটি ডিসিপ্লিন দল অংশগ্রহণ করেছে যাতে প্রমাণিত হয় সবক্ষেত্রে মেয়েরা এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি শিক্ষার্থীদের সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন উচ্চশিক্ষাঙ্গনসহ বিভিন্ন স্থানে যুব সমাজ মাদকে আসক্ত হওয়ার মতো খবর প্রায়ই মিডিয়াতে প্রকাশিত হচ্ছে এটা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ উদ্বেগের বিষয়। একবার মাদকে জড়িয়ে গেলে তা প্রাণশক্তি ও প্রতিভা নষ্ট করে দেয়। তাই খেলোয়াড়দের এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে এবং তাদের অন্যসহপাঠীদের বিষয়ও খোঁজ-খবর নিতে হবে। তিনি আরও বলেন শিক্ষার্থীরা বেশি করে খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চায় সম্পৃক্ত হলে বিপদগামী হয় না। তিনি ছাত্র-ছাত্রীদেরকে বেশি করে খেলাধুলা, হইহুল্লোড় করা, বেশি করে হাসার পরামর্শ দেন যাতে তাদের চিত্ত প্রফুল্ল থাকে।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ ও ছাত্রবিষয়ক পরিচালক প্রফেসর ড. আশীষ কুমার দাস। পরে প্রধান অতিথি চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দলের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শারীরিক শিক্ষাচর্চা বিভাগের (ভারপ্রাপ্ত) পরিচালক মোল্লা মোহাম্মদ শফিকুর রহমান। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ডিন, ডিসিপ্লিন প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও ছাত্র-ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন শারীরিক শিক্ষা বিভাগের উপ-পরিচালক মোঃ মঈনুল ইসলাম। খেলায় নজর কাড়া নৈপুণ্য প্রদর্শনের জন্য ভলিবলে ছাত্রদের মধ্যে এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের মোহাম্মদ আবু হানিফ এবং মেয়েদের মধ্যে পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের শাহারিয়া শারমিন বেষ্ট প্লেয়ার অব দি টুর্ণামেন্ট হওয়ার গৌরব অর্জন করে। অপরদিকে ছাত্রদের খেলায় পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের সৌরভ হালদার এবং ছাত্রীদের খেলায় ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের রাশমিয়া সুলতানা বেষ্ট প্লেয়ার অব দি ফাইনাল হওয়ার গৌরব অর্জন করে।
#