খুলনা শিশু ফাউন্ডেশনের নির্বাচন ১৯ ডিসেম্বর : ৩৭ প্রার্থীর মনোনয়ন সংগ্রহ

0
610

 

টাইমস প্রতিবেদক:
খুলনা শিশু ফাউন্ডেশনের নির্বাহী কাউন্সিলের নির্বাচন আগামী ১৯ ডিসেম্বর। আগামী ১৯ ডিসেম্বর সকাল ৯টা হতে বিকাল ৪টা পর্যন্ত খুলনা জেলা ক্রীড়া ষ্টেডেয়ামে ২০জন সদস্য বিশিষ্ট এ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলবে।  মোট ভোটার রয়েছে ২ হাজার ১শ’ ৮৪ জন।

এদিকে মনোনয়নপত্র বিতরণের প্রথম দিনেই দুটি প্যানেলের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে। গত নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করা দুটি প্যানেলের শীর্ষ নেতারাই এবারও এই দুটি প্যানেলের নেতৃত্বে আছেন। ১৯ নভেম্বর রবিবার তারা সংঘবদ্ধ হয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। মোট ৩৭টি মনোনয়ন বিতরণ হয়।

খুলনা মহানগর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান এমপি ও খুলনা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সভাপতি কাজি আমিনুল হক নেতৃত্বাধীন পরিষদের মনোনয়ন সংগ্রহকারীরা হলেন, মিজানুর রহমান মিজান এমপি এম ডি এ বাবুল রানা, এ্যাড. সরদার রজব আলী, ফেরদউস আলম খান ফায়াজী, মুর্শিদা আক্তার রনি, কাউন্সিলর আলী আকবর টিপু, রায়হান ফরিদ, হালিমা  ইসলাম, রায়হান ফরিদ, মোজাফ্ফর রশিদী রেজা, ডা. কামরুল ইসলাম, ডা. বজলুর হক, খান সাইফুল ইসলাম, মোঃ মনিরুল ইসলাম মাসুদ, সৈয়দ হাফিজুর রহমান, জোবায়ের আহমেদ জবা, চেম্বার পরিচালক আলহাজ্ব মফিজুল ইসলাম টুটুল, ডা. মাহমুদ হাসান লেলিন, ফেরদউস হোসেন লাবু।

আর সদর থানা আওয়ামীলীগ সভাপতি সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বাধীন  শিশু স্বাস্থ ও সেবা পরিষদের মনোনয়ন সংগ্রহকারী হলেন, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, এ্যাড. মোঃ সাইফুল ইসলাম, এ্যাড. শিকদার হাবিবুর রহমান, এ্যাড. কানিজ ফাতেমা আমিন, ফারুক আহমেদ খান, ফকির মোঃ সাইফুল ইসলাম, মোঃ শাহ আলম তুহিন, জি.এম. রেজাউল ইসলাম, মোস্তফা কামাল খোকন পাশা, রফিকুল রহমান রিপন, এ্যাড. কে.এম. ইকবাল হোসেন, মিনা আজিজুর রহমান, অচিন্ত কুমার ঘরামী, একে. এম শাহজাহান কচি, তহিদুল ইসলাম ঝন্ট,ু আবুল মুনসুর আজাদ, সাব্বির খান দ্বীপ, মোঃ ইউসুপ আলী।

এর আগে গত ১৫ নভেম্বর নির্বাচন কমিশনার ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নূর ই আলম স্বাক্ষরিত গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে এই তফশিল ঘোষণা করা হয়। তফশিল অনুযায়ী, রবিবার (১৯ নভেম্বর) হতে মঙ্গলবার পর্যন্ত (২১ নভেম্বর) মনোনয়ন পত্র বিতরণ করা হবে। মনোনয়নপত্র দাখিল করা যাবে আগামী বুধবার (২২ নভেম্বর)  ১২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত। পরদিন  বৃহস্পতিবার (২২ নভেম্বর) বাছাইয়ের দিন ধার্য্য করা হয়েছে। এছাড়া  ২৬ নভেম্বর মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে আপত্তি ও শুনানী (যদি থাকে), ২৭ নভেম্বর প্রার্থীদের নামের খসড়া তালিকা প্রকাশ, ২৯ নভেম্বর মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার, ও ৩০ নভেম্বর প্রার্থীদের নামের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের দিন ধার্য্য করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত : সর্বশেষ নির্বাচন ২০১৪ সালের ১১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। তখন মোট ভোটার ছিল ৭শ’ ৮৫ জন।