খুলনা বিভাগে তিন মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৯২

0
459

নিজস্ব প্রতিবেদক:
খুলনা বিভাগের দশ জেলায় গত তিন মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় ৯২জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো ৪৩২ জন। সোমবার দুপুরে খুলনা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) খুলনা জেলা শাখার উপদেষ্টা এ্যাড. মো. সাইফুল ইসলাম।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, গত এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত এই তিন মাসে খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৯২ জন নিহত ও ৪৩২ জন আহত হয়েছে। এরমধ্যে খুলনা মহানগরীসহ জেলায় ২৪ জন নিহত ও ৩৯০ জন আহত, বাগেরহাটে ১১ জন নিহত ও ৪৫জন আহত, সাতক্ষীরায় ১১ জন নিহত ও ৩০জন নিহত, যশোর নিহত ২৪ জন আহত ৪৭ জন, ঝিনাইদাহ নিহত ১৯ জন নিহত ও ৩৪ জন আহত, মাগুরায় ৩জন নিহত ৯জন আহত, নড়াইলে ১জন নিহত ও ১৩জন আহত, কুষ্টিয়ায় ১ জন নিহত ও ১৯ জন আহত, চুয়াডাঙ্গায় ৪ জন নিহত ও ৮ জন আহত এবং মেহেরপুরে ১জন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছে। বিগত জানুয়ারি-মার্চ পর্যন্ত খুলনা বিভাগে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা ছিল ৬৯। খুলনা বিভাগের মধ্যে যশোরে দুর্ঘটনার হার এবং নিহত ও আহত হওয়ার সংখ্যাও বেশি। দুর্ঘটনার হার সবচেয়ে কম নড়াইল জেলায়। আঞ্চলিক ও জাতীয় পত্রিকা থেকে এ তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, খুলনা মহানগরীতে সড়ক দুর্ঘটনা দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ মহানগরীতে সড়ক দুর্ঘটনার কারণ হচ্ছে, বেপরোয়া মাহিন্দ্র, মোটরসাইকেল, ইঞ্জিনচালিত রিকশা, অপরিকল্পিত ইজিবাইক এবং দিনের বেলায় ট্রাক চলাচল করা। এছাড়া রাস্তার পাশে ইট-বালু রাখা, ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন ইত্যাদি।
সংবাদ সম্মেলনে দুর্ঘটনারোধে কিছু নিদের্শনা তুলে ধরা হয়। এগুলো হচ্ছে, মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রাস্তা পার না হওয়া, রাস্তা চলাচলের সময় ডান পাশ দিয়ে হাঁটা, সচেতনভাবে চলা, গাড়িতে উঠে চালককে তাড়াতাড়ি যেতে না বলা, বাসের ছাদে বা অতিরিক্ত যাত্রী হয়ে গাড়িতে না উঠা, ট্রাফিক আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া, উলটা পথে চলা থেকে বিরত থাকা, হেলমেট ছাড়া এবং ফুটপাত দিয়ে গাড়ী চালানো, গাড়ি চালানোর আগে ব্রেক, লাইট, হর্ন চেক করা, প্রশিক্ষণবিহীন বা হেলপার দ্বারা গাড়ি না চালানো ইত্যাদি। সংবাদ সম্মেলনে সড়ক দুর্ঘটনারোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা বাস্তবায়নের দাবি জানানো হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন নিরাপদ সড়ক চাই’র (নিসচা) খুলনা জেলা সাধারণ সম্পাদক এসএম ইকবাল হোসেন বিপ্লব, সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের জেলা সাধারণ সম্পাক অ্যাডভোকেট কুদরত-ই-খুদা, নিসচার জেলা সভাপতি মো. হাছিবুর রহমান হাছিব, খুলনা নাগরিক সমাজের সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মো. বাবুল হাওলাদার, খুলনা উন্নয়ন ফোরমের মহাসচিব এমএ কাশেম, বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন আন্দোলনের চেয়ারম্যান শেখ মো: নাসিরউদ্দিন, মো. সেলিম খান, খাইরুল ইসলাম জনি, বাকের আহমেদ, হোসাইন মো. ইউছা ওয়ায়েজ আররাফী নাজু, আফজাল হোসেন রাজু, এম মোস্তফা কামাল, মো. মাসুদ রানা, রাকিবউদ্দিন ফারাজী, শিরিনা আক্তার, জুবাইয়া নওশিন প্রমুখ।