খুলনা নগর আ’লীগে কো-অপট করার সিদ্ধান্ত : অসুস্থ ও অনুপস্থিতরা বাদ পড়ছে

0
614

খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, এ বছরেই সিটি কর্পোরেশন ও জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। খালেদা জিয়াকে এ নির্বাচনে আসতেই হবে। নির্বাচন ছাড়া খালেদা জিয়া অন্য কোন পথ নেই। তার এবং বিএনপি’র অস্তিত্বের কারনেই তাকে নির্বাচনে আসতে হবে। সুতরাং বিএনপিকে মোকাবেলা করে সিটি কর্পোরেশন ও জাতীয় নির্বাচনে বিজয় অর্জন করতে হবে। দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠন করে দেশ ও জাতির উন্নয়নের ধারাকে অব্যহত রাখতে হবে। সেজন্যে সকলকে ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে সুসংগঠিত হতে হবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় ২৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সভায় নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ১৪ দলের সমন্বয়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান এমপি।

সভায় সভাপতিত্ব করেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ আব্দুল আজিজ। এসময়ে অন্যান্যের মধ্য বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ নেতা শেখ হায়দার আলী, মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, তসলিম আহমেদ আশা, টি এম আরিফ, আব্দুস সালাম ঢালী, এ্যাড. রোজিনা আক্তার, মো. আইয়ুব আলী, মুন্সি হেকমত আলী, অধ্যাপক আলী আকবর, রবিউল ইসলাম বাবু।

এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা আলমগীর সরদার, শেখ মোহাম্মদ আলী, রফিকুল ইসলাম পিটু, মোজাফফর হোসেন, আকবর আলী, তোতা মিয়া, এজাজ আহমেদ পারভেজ, আব্দুস সালাম ফারাজী, মো. নুর ইসলাম, জয়নাল আবেদীন তিলু, শেখ খলিলুর রহমান, শেখ ইউনুস আলী, মো. জাকারিয়া, এ্যাড. মোল্লা মহব্বত, শেরআলী শের বাগ, শেখ আসলাম উদ্দিন, শাহাদাৎ হোসেন, রমিজুল হক, ইউসুফ আলী খান, মঞ্জুয়ারা বেগম লাভলী, মনোয়ারা বেগম, কবিতা বেগম,মো. শওকাত হোসেন, মো. সাইদুর রহমান, মো. হেলাল উদ্দিন কাজী, শামসুল হুদা, মো. জাহিদুর রহমান, রফিকুল ইসলাম, আবু সালাম, মাসুম মোল্লা, জহুর মোল্লা, এস এম মনির হোসেন, মো. লিটুসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

সভায় নির্বাচনকে সামনে রেখে সংগঠন শক্তিশালী করতে অসুস্থ ও অনুপস্থিত কর্মীদের বাদ দিয়ে কোঅপট করার সিদ্ধান্ত হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি