খুলনা টিভি রিপোর্টাস ইউনিটির উদ্বেগ-ক্ষোভ

0
651

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
ডিবিসি’র খুলনা ব্যুরো প্রধান সাংবাদিক আমিরুলের চুরি হওয়া মটর বাইক উদ্ধার না হওয়ায় গভীর উদ্বেগ এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন খুলনা টিভি রিপোর্টাস ইউনিটির নেতৃবৃন্দ।
নেতৃবৃন্দ এক বিবৃতিতে বলেছেন, শুক্রবার দুপুরে কেডিএ জামে মসজিদের সামনে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ কমিশনার দক্ষিনের গাড়ির পাশ থেকেই মটরবাইকটি চুরি হয়। খুলনা মেট্রো হ-১১-৬৩৬৬ রেজিষ্ট্রেশনের ডিসকভার বাইকটি যখন চুরি হয় সাংবাদিক আমিরুল এ সময়ে মসজিদের ভেতরে জুম্মার নাজাম পড়ছিলেন।
ঘটনাটি সাথে সাথে পুলিশের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তাদের জানানো হলেও এখন পর্যন্ত সেটি উদ্ধার হয়নি।
এর আগে দৈনিক ইত্তেফাকের অফিস চুরি, কালের কণ্ঠ পত্রিকা অফিস চুরি, সময় টেলিভিশন এর অফিস চুরি এবং এনটিভির খুলনা ব্যুরো প্রধান আবু তৈয়েবের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি হলেও কোন মালামাল উদ্ধার হয়নি। গ্রেপ্তার হয়নি কেউ। যদিও সবগুলো ঘটনাতেই থানায় মামলা হয়েছিল।
ঘটনাগুলো শহর জুড়ে চাঞ্চল্যসৃষ্টি করলেও পুলিশ কোন প্রতিক্রিয়া বা দায়িত্বশীলতার নজীর দেখাতে পারেনি। পুলিশের অবহেলায় যে আসামীরা গ্রেপ্তার হচ্ছেনা এটি নিশ্চিত। দয়িত্বপালনে পুলিশের এই ব্যর্থতা সাংবাদিক সমাজ এবং খুলনাবাসি কখনোই মেনে নেবেনা। আইনশৃঙ্খলার এই অবনতীর দায় নিতে হবে সকল পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তাকেই।
অবিলম্বে সাংবাদিক আমিরুলসহ অন্যান্য সাংবাদিকদের চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার করতে হবে।
বিবৃতিদারা হলেন, সংগঠনের সভাপতি মাহাবুব আলম সোহাগ, সহসভাপতি মল্লিক সুধাংশু, সুনীল দাস, সাধারণ সম্পাদক রকিব উদ্দিন পান্নু, কোষাধ্যক্ষ লিয়াকত হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মহেন সেন, নির্বাহী সদস্য এসএম হাবিব, মামুন রেজা, বাবুল আখতার, ড্যানিয়েল এস বোস প্রমুখ।