খুলনা জেলা মাদকদ্রব্য অভিযানে বিদেশী মদ- বিয়ারসহ বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার

0
848

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনাটাইমস:
খুলনা জেলা মাদকদব্র নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় এর একটি যৌথ টিম অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান দেশি-বিদেশী মদ, বিয়ার, চোলাই মদ ও গাজা উদ্ধার করেছেন। উদ্ধারৃক মাদকের মধ্যে বিদেশী মদ ৩০ বোতল, দেশী মদ কেরু ৭ বোতল, বিয়ার (হ্যারিক্যান) ৬৫টি ক্যান, বাইহ্যানো বিয়ার ক্যান ২৯টি, চোলাই মদ ২০ লিটার ও ১শ’ গ্রাম গাজা।
এ সময় দুই জন মহিলা গাজা বিক্রেতাকে আটক করলেও মাদকের গডফাদার হিসেবে চিহিৃত দুই মহিলা মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। পরবর্তীতে আটক ওই দুই মাদক বিক্রেতাকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ৫শ’ টাকা করে জরিমানা প্রদান করেন।
রোববার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত দাকোপ উপজেলা বানিয়াশান্তা নিষিদ্ধ পল্লীতে এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।
জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয় সূত্র মতে, সংস্থার উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামানের নেতৃত্বে গোয়েন্দা শাখা, ‘খ’ সার্কেল ও ওয়ারহাউজের পরিদর্শকের সমন্বয়ে একটি যৌথ টিম সকাল ১০টার দিকে দাকোপ উপজেলা বানিয়াশান্তা নিষিদ্ধ পল্লীতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিদেশী মদ ব্লাক ক্লিয়ার ৩০ বোতল, দেশী মদ কেরু ৭ বোতল, বিয়ার (হ্যারিক্যান) ৬৫টি ক্যান, বাইহ্যানো বিয়ার ক্যান ২৯টি, চোলাই মদ ২০ লিটার ও ১শ’ গ্রাম গাজা উদ্ধার করা হয়। অভিযান টের পেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে তালিকাভুক্ত চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী আঃ ছত্তারে কন্যা জাহানারা (৩০) ও মহিদুলের স্ত্রী রুমা (৩০) পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। এ সময় ওই এলাকার বাসিন্দা গাজা বিক্রেতা হারুনের কন্যা লাভলী বেগম (৩০) ও কাশেম হাওলাদারের কন্যা কালা পারভীন (৩৮) আটক করেন। পরবর্তীতে দাকোপ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাকে ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাফুরুল আলম ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করে তাদেরকে ৫শ’ টাকা করে জরিমানা করেন। ওই অভিযানে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় এর গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক পারভিন আক্তার, ‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শক সাইফুর রহমান রানা ও ওয়ারহাউজের পরিদর্শক মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় এর উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামান এ প্রতিবেদককে বলেন, পলাতক জাহানারা ও রুমার নামে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় তালিকাভুক্ত চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী। অভিযানে টের পেয়ে তারা মাদক রেখে দ্রুত এলাকার থেকে সটকে পড়েন। তিনি বলেন, তাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। ##